বাংলা নিউজ > ময়দান > অ্যাডিলেড টেস্ট ভারতের ল্যাজেগোবরে হওয়ার সময়ে পন্ত কী করছিলেন জানেন?
২০২১ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজ জয়ের পর ভারতীয় সতীর্থদের সঙ্গে ঋষভ পন্ত।

অ্যাডিলেড টেস্ট ভারতের ল্যাজেগোবরে হওয়ার সময়ে পন্ত কী করছিলেন জানেন?

  • রাহানের নেতৃত্বে প্রথমে মেলবোর্ন, তার পর গাব্বায় ঐতিহাসিক জয় ছিনিয়ে নিয়ে এক ইতিহাস লিখে ফেলে ভারতীয় দল। এই রূপকথা রচনার পিছনে বড় অবদান রয়েছে ঋষভ পন্তের। অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টে অবশ্য তিনি দলে জায়গা পাননি। তাঁর বদলে খেলেছিলেন ঋদ্ধিমান সাহা। কিন্তু ৩৬ অল আউটের পরেই ঋদ্ধিকে সরিয়ে খেলানো হয় পন্তকে।

গত ২০২০-২১ মরশুমে অস্ট্রেলিয়া সফরের শুরুতেই লজ্জার মুখে পড়তে হয়েছিল ভারতকে। তবে পরে টিম ইন্ডিয়া সেই লজ্জার থেকে বেরিয়ে এসে নতুন রূপকথা লিখে ফেলে। তবে অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে ৩৬ রানে অল আউটের লজ্জা গ্রাস করেছিল টিম ইন্ডিয়াকে। বিশ্ব ক্রিকেটে মাথা হেঁট হয়েছিল ভারতের। কিন্তু এক দল তরুণ মিলে অজিঙ্কা রাহানের নেতৃত্বে ভারতকে সেই লজ্জার হাত থেকে মুক্তি দিয়েছিল। তাও সেই সময়কার অধিনায়ক বিরাট কোহলি সহ একাধিক তারকা ক্রিকেটারের অনুপস্থিতিতে।

রাহানের নেতৃত্বে প্রথমে মেলবোর্ন, তার পর গাব্বায় ঐতিহাসিক জয় ছিনিয়ে নিয়ে এক ইতিহাস লিখে ফেলে ভারতীয় দল। এই রূপকথা রচনার পিছনে বড় অবদান রয়েছে ঋষভ পন্তের। অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টে অবশ্য তিনি দলে জায়গা পাননি। তাঁর বদলে খেলেছিলেন ঋদ্ধিমান সাহা। কিন্তু ৩৬ অল আউটের পরেই ঋদ্ধিকে সরিয়ে খেলানো হয় পন্তকে।

আরও পড়ুন: অজিদের হারানোর প্রস্তুতি শুরু, নেটে দীর্ঘ কসরত রোহিত, কোহলিদের

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে একজন ভালো ব্যাটারের থেকেও একজন স্পেশালিস্ট উইকেটকিপারকে বেশি করে চেয়েছিল ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। এর জন্যই পন্তের পরিবর্তে ঋদ্ধিকে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ৩৬ অল আউটের পরেই একজন বাঁহাতিকে ব্যাটিং লাইনআপে প্রয়োজন বলে মনে করে টিম ম্যানেজমেন্ট। সুযোগ পান ঋষভ।

এর পর বাকি ৩ টেস্টে ২৭৪ রান করেন পন্ত। গাব্বার চতুর্থ ইনিংসে অপরাজিত ৮৯ করেছিলেন। তবে এ কথা অনেকেই জানেন না, সেটা হল ভারত যখন অ্যাডিলেডে একের পর এক উইকেট হারাচ্ছিল, তখন পন্ত রিজার্ভ বেঞ্চে বসে না থেকে নিজের কাজ করে চলেছিলেন। দলের তৎকালীন ফিল্ডিং কোচ আর শ্রীধর সম্প্রতি জানিয়েছেন, সেই সময়ে পন্ত উইকেটকিপিং প্র্যাক্টিস করে চলেছিলেন।

আরও পড়ুন: শামির কোভিড, সিরাজ-প্রসিধ-আবেশকেও পাওয়া যাচ্ছে না, তাই দলে উমেশ- যুক্তি রোহিতের

এক ওয়েবসাইটকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শ্রীধর দাবি করেছেন, ‘বিশ্বাস করবেন না, তৃতীয় দিন সকালে যখন তাসের ঘরের মত উইকেট পড়ছিল, সে সময় পন্ত এবং আমি বাইরের প্র্যাক্টিস পিচে কিপিং অনুশীলন করছিলাম। ঠিক সে সময়ে আমরা অ্যাডিলেড ওভালে উচ্চস্বরে উচ্ছ্বাসের আওয়াজ, সেই সঙ্গে করতালি শুনতে থাকি। আমাদের মনের অবস্থা তখন এরকম ছিল, ওহ্! আশা করি, এগুলি উইকেট পতনের উল্লাস নয়। প্রায় ২০ মিনিট পরে আমাদের কিপিং সেশনটি সমাপ্ত করে, স্কোর কী তা দেখতে স্টেডিয়ামে ছুটে এসেছিলাম। স্কোর দেখে বিমর্ষ হয়ে পড়ি। ২১/৭ স্কোর ছিল। আমার আর ঋষভের প্রতিক্রিয়া ছিল এইরকম, এখানে কী হয়েছে?! এমন কী আমরা এটি লাইভ-ও দেখিনি।’

বন্ধ করুন