বাংলা নিউজ > ময়দান > ব্যাট হাতে দীপকের কামালে ভাঙল ভুবির রেকর্ড, টপ অর্ডারের ব্যর্থতা ঢাকল 'টেলএন্ড'
দীপক চাহার এবং ভুবনেশ্বর কুমার (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)
দীপক চাহার এবং ভুবনেশ্বর কুমার (ছবি সৌজন্যে রয়টার্স) (REUTERS)

ব্যাট হাতে দীপকের কামালে ভাঙল ভুবির রেকর্ড, টপ অর্ডারের ব্যর্থতা ঢাকল 'টেলএন্ড'

  • দীপক চাহার এবং ভুবনেশ্বর কুমারের জুটিতে ম্যাচ এবং সিরিজ জেতে ভারত। পথে পার্টনার ভুবিরই রেকর্ড ভাঙেন দীপক

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ খুব সহজেই জিতে গিয়েছিল ভারত। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে পদে পদে বেগ পেতে হয় মেন ইন ব্লুদের। তবে শেষ পর্যন্ত দীপক চাহার এবং ভুবনেশ্বর কুমারের জুটি ভারতকে ম্যাচ এবং সিরিজ জিতিয়ে দেয়। দুর্দান্ত এই পার্টনারশিপের ফলে তৈরি হয়েছে বেশ কয়েকটি রেকর্ড। এমনকি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নবাগত দীপক ভেঙেছেন পার্টনার ভুবনেশ্বরের একটি ব্যাটিং রেকর্ডও।

এর আগে রান তাড়া করতে নেমে ভারতের হয়ে ৮ নম্বরে সর্বোচ্চ রান করার রেকর্ড ছিল ভুবনেশ্বরের ঝুলিতে। সেবার তাঁর সঙ্গে ব্যাট করছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। ২০১৭ সালের সেই ম্যাচে প্রতিপক্ষ ছিল সেই শ্রীলঙ্কা। আর গতকাল শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধেই ভুবনেশ্বরের রেকর্ড ভাঙলেন দীপক চাহার। ২০১৭ সালের সেই ম্যাচে ভুবনেশ্বর করেছিলেন ৫৩। আর গতকাল দীপকের ব্যাট থেকে আসে ৬৯। কোনও ভারতীয় হিসেবে রান তাড়া করার সময়ে ৮ নম্বরে এটার সর্বোচ্চ রান।

এদিকে এছাড়াও গতকাল রান তাড়া করতে গিয়ে অষ্টম উইকেটে অপরাজিত পার্টনারশিপের নিরিখে তৃতীয় সর্বোচ্চ স্থানে জায়গা পান দীপক-ভুবি। এর আগে ২০১৭ সালে ধোনি এবং ভুবির জুটি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে রান তাড়া করতে নেমে ১০০ রানে অপরাজিত ছিল। এই তালিকায় শীর্ষে এই পার্টনারশিপটি রয়েছে। এই তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রবি বোপারা-স্টুয়ার্ট ব্রড। ২০০৭ সালে ভারতের বিরুদ্ধে এঁরা অষ্টম উইকেটে ৯৯ রান করে অপরাজিত ছিল। আর তালিকায় তৃতীয় স্থানে গতরাতে চাহার-ভুবির পার্টনারশিপ। তাঁরা ৮৪ রানে অপরাজিত ছিলেন।

এদিকে গতকাল প্রথম পাঁচ উইকেট যেই কম রানে ভারত হারিয়েছিল, তাতে এই ম্যাচে 'অ্যাডভান্টেজ' শ্রীলঙ্কা ছিল। প্রথম ম্যাচে যেভাবে টপ অর্ডার ম্যাচটা সহজে জিতিয়ে দেয়, দ্বিতীয় ম্যাচে তার পুনরাবৃত্তি হয়নি। এর জেরে চাপ এসে পড়ে মিডল এবং লোয়ার মিডল অর্ডারের উপর। সেখান থেকে প্রথমে সূর্যকুমার যাদব, ক্রুণাল পান্ডিয়া এবং পরবর্তীতে দীপক চাহার, ভুবনেশ্বর কুমাররা ম্যাচ বের করে আনেন। লোয়ার মিডল অর্ডার এবং টেলএন্ডারদের এই দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের জেরে এই ইনিংসটি আরও একটি তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। সফল রান তাড়া করার ক্ষেত্রে ভারতের পাঁচ উইকেট পড়ে যাওয়ার পর সর্বোচ্চ রানের তালিকায় গলকালকের এই ইনিংস তৃতীয় স্থানে স্থান পেয়েছে। গতকাল ভারত পাঁচ উইকেট পতনের পর ১৬১ রান করেছে। এই তালিকায় শীর্ষে ২০০২ সালে খেলা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেই ন্যাটওয়েস্ট ফাইনাল। সেই ম্যাচে পাঁচ উইকেট পড়ে যাওয়ার ভারত করেছিল ১৮০। এররপরে জিমবাবোয়ের বিরুদ্ধে ভারতের ২০০৫ সালে খেলা একটি ম্যাচ রয়েছে। সেই ম্যাচে ভারত ১৬৫ রান করেছিল পাঁচ উইকেটের পতনের পর। আর এরপরই ভারতের গতরাতেন ইনিংসটি জায়গা পেল।

বন্ধ করুন