বাংলা নিউজ > ময়দান > উপমহাদেশে টেস্টে পারফরম্যান্সের সঙ্গে অজিদের ঠাসা সূচি নিয়ে মুখ খুললেন স্মিথ
স্টিভ স্মিথ।
স্টিভ স্মিথ।

উপমহাদেশে টেস্টে পারফরম্যান্সের সঙ্গে অজিদের ঠাসা সূচি নিয়ে মুখ খুললেন স্মিথ

  • অস্ট্রেলিয়া উপমহাদেশে খেলতে গিয়ে শেষ পাঁচটি টেস্ট সিরিজে হেরেছে। ভারত এবং পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দু'টি করে। এবং শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একটি সিরিজে।

২০২১ সালের জুন মাস থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নেশিপের জন্য একেবারে ঠাসা সূচি রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার। এই সময়ের মধ্যে মোট ১৮টি টেস্ট খেলবে তারা। তার মধ্যে আবার ৮টি টেস্ট উপমহাদেশে রয়েছে। এই ঠাসা ক্রীড়াসূচি যে কোনও দলের পক্ষেই বেশ চাপের, এমনটাই মনে করেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটার স্টিভ স্মিথ। তবে তিনি বলেছেন, ‘এটা একেবারে ঠাসা সূচি। যা খুবই চাপের। কিন্তু আমার হাতে সূচি বদলানোর ক্ষমতা নেই।’

ভারতের এসে বিরাট কোহলিদের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার চারটি টেস্ট খেলার কথা রয়েছে। এ ছাড়াও পাকিস্তানে এবং শ্রীলঙ্কায় গিয়েও দু'টি করে টেস্ট খেলবে তারা। এর বাইরেও ঘরের মাঠে ১০টি টেস্ট খেলবে অস্ট্রেলিয়া। অজি তারকা ব্যাটসম্যান বলছিলেন, ‘এটা সত্যিই খুবই চাপের। তবে আমাদের সামনে তাকাতে হবে। এগুলোর সঙ্গে আবার অ্যাসেজ রয়েছে। তার পরে উপমহাদেশে গিয়ে টেস্ট খেলতে হবে। আর উপমহাদেশে গিয়ে টেস্ট খেলা মানে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়া। সেটা শারীরিক ভাবে, মানসিক ভাবে এবং একই সঙ্গে আবেগও চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ে। এই সব কারণে প্লেয়ারদের বড় পরীক্ষার মুখেও পড়তে হয়। আমি অবশ্য এই পরীক্ষা দেওয়ার অপেক্ষায় রয়েছি। টেস্ট ক্রিকেটকে ভালবেসেই যতটা পারব খেলতে চাই। আমার পক্ষে তো সূচি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। এটা বদলানোর ক্ষমতাও নেই।’

প্রসঙ্গত, অস্ট্রেলিয়া উপমহাদেশে খেলতে গিয়ে শেষ পাঁচটি টেস্ট সিরিজে হেরেছে। ভারত এবং পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দু'টি করে। এবং শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একটি সিরিজে। এশিয়ায় এসে তারা শেষ বার মাইকেল ক্লার্কের নেতৃত্বে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ জিতেছিল।

বন্ধ করুন