বাড়ি > ময়দান > ঘরের মাঠে হার 'বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন' ইংল্যান্ডের, ইতিহাস লিখল আয়ারল্যান্ড
 জয়ের চওড়া হাসি আয়ারল্যান্ডের কেভিন ও ব্রায়েনের মুখে।  (AP)
 জয়ের চওড়া হাসি আয়ারল্যান্ডের কেভিন ও ব্রায়েনের মুখে।  (AP)

ঘরের মাঠে হার 'বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন' ইংল্যান্ডের, ইতিহাস লিখল আয়ারল্যান্ড

  • ৩২৯ রানে লক্ষ্য ছিল আয়ারল্যান্ডের সামনে। মর্গ্যান বাহিনীর বিরুদ্ধে এদিন সাত উইকেটে এদিন ম্যাচ জিতল আইরিশ দল।

মঙ্গলবার  ইংল্যান্ডের মাটিতে ইতিহাস রচনা করল প্রতিবেশী রাষ্ট্র আয়ারল্যান্ড। পল স্টার্লিং ও অ্যান্ডি বালবার্নির জোড়া শতরানের উপর ভর করে একদিবসীয় ক্রিকেটের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ান দল ইংল্যান্ডকে ঘরের মাটিতে হারিয়ে দিল আয়ারল্যান্ড। এদিন সাউদাম্পটনের রোজ বোল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সিরিজের শেষ ম্যাচে হোয়াইট ওয়াশ এড়াতে সফরকারীতে তাড়া করতে হত রেকর্ড ৩২৮ রানের। তবে এক বল বাকি থাকলেই মাত্র ৩ উইকেট খুইয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ৩২৯ রান তুলে নেন কেভিন ও ব্রায়েনরা। 

তাই ২-১ সিরিজ জিতলেও মুখ পুড়ল ইয়ান মর্গ্যানের দলের। ইংল্যান্ডের মাটিতে এতদিন সর্বাধিক রান তাড়া করবার রেকর্ড ছিল টিম ইন্ডিয়ার ঝুলিতে। সেই রেকর্ডও এদিন ভেঙে দিল আইরিশ দল। ২০০২ সালে ন্যাটওয়েস্ট ট্রফির ফাইনালে ভারত ৩২৬ তুলে ম্যাচ জিতে নজির গড়েছিল সফরকারী দল হিসাবে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে ম্যাচ জেতার। ১৮ বছর পর সেই রেকর্ডের পাশে নিজেদের নাম লেখালেন স্টার্লিং,বালবার্নিরা। আর এই জয়ের নায়ক অবশ্যই আয়ারল্যান্ডের টপ ওর্ডারের দুই ব্যাটসম্যান পল স্টার্লিং ও অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবার্নি। তাঁদের ২১৪ রান পার্টনারশিপ আয়ারল্যান্ডকে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছিল। 

এদিন ১৪২ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন বালবার্নি। তিনি এদিনের ম্যান অফ দ্য ম্যাচ। তবে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩০০ বেশি রান তাড়া করে আগেও ম্যাচ জিতেছে আয়ারল্যান্ড। তাও বিশ্বকাপের মতো বড়ো মঞ্চে। ২০১১-র বিশ্বকাপে ভারতের মাটিতে,বেঙ্গালুুরুতে ৩২৯ তুলেই ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিল আয়ারল্যান্ড। ৯ বছর আগের সেই ম্যাচ জয়ের নায়ক কেভিন ও ব্রায়েন এদিন আইরিশ দলকে জয়ের গন্ডি পার করান। 

আয়ারল্যান্ডের জয়ের দুই নায়ক পল স্টার্লিং ও অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবার্নি
আয়ারল্যান্ডের জয়ের দুই নায়ক পল স্টার্লিং ও অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবার্নি (REUTERS)

এদিন টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন আইরিশ অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবার্নি। শুরুতে ধাক্কা খেলেও (৪৪-৩) ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ান মর্গ্যানের শতরানের উপর ভর করে আয়ারল্যান্ডের সামনে জয়ের জন্য ৩২৯ রানে লক্ষ্য রেখেছিল বিশ্ব চ্যাম্পিয়ানরা। 

এদিনের এই জয় নিঃসন্দেহে আয়ারল্যান্ড দলকে আত্মবিশ্বাস জোগাবে। চ্যাম্পিয়ান দলকেও যে তাঁরা হারাতে পারে সে কথা ভালোভাবেই প্রমাণ করে দিল বালবার্নির দল। এর আগে জানুয়ারি মাসে টি-টোয়েন্টি ফর্ম্যাটের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ান ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও হারিয়েছে আয়ারল্যান্ড। মাত্র কয়েক মাসের ব্যবধানে দুটি পৃথক ফর্ম্যাটের বিশ্ববিজেতা দলকে হারানোটা আইরিশ ক্রিকেটের কাছে বড় প্রাপ্তি। 

বন্ধ করুন