বাংলা নিউজ > ময়দান > কাতারে উড়ে যাওয়ার আগে সুনীল তেতে থাকলেও, আত্মবিশ্বাসী নন ভারতীয় দলের কোচ
সুনীল ছেত্রী।
সুনীল ছেত্রী।

কাতারে উড়ে যাওয়ার আগে সুনীল তেতে থাকলেও, আত্মবিশ্বাসী নন ভারতীয় দলের কোচ

  • কাতারে গিয়েই শিবির করবে ভারত। ওখানেই যা প্রস্তুতি নেওয়ার নেবে। সে কারণেই ২৮ জনের দল নিয়ে দোহা যাচ্ছেন স্টিমাচ। বুধবার রাতেই নয়াদিল্লি থেকে বিশেষ বিমানে দোহা উড়ে যাবে ভারতীয় দল।

লক্ষ্য এখন ২০২৩ এশিয়ান কাপে যোগ্যতা অর্জন করা। আর সেই লক্ষ্য নিয়েই বুধবার রাতে ২৮ জনের ভারতীয় দল দোহা উড়ে যাচ্ছে। ২০২২ বিশ্বকাপে যোগ্যতা অর্জন করার কোনও সম্ভাবনা নেই। কিন্তু এশিয়ান কাপে যোগ্যতা অর্জন করার এখনও সুযোগ রয়েছে। আর সেই সুযোগটাই কাজে লাগাতে চান সুনীল ছেত্রীরা।

এআইএফএফ-কে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে সুনীল বলেছেন, ‘সবাই এত দিন বাড়িতে বন্দি ছিলাম। এ বার আবার ফুটবল শুরু হচ্ছে। এটাই তা বড় পাওয়া।’ এরই সঙ্গে ভারত অধিনায়ক যোগ করেছেন, ‘আমি নিজে এই টুর্নামেন্ট খেলার জন্য ছটফট করছি। আসলে অসুস্থতার জন্য বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জনের জন্য কাতারের বিরুদ্ধে আগে যে ম্যাচটি ছিল, তাতে খেলতে পারিনি। তবে জুন মাসে ওখানকার গরমটা সমস্যার হবে। সে ভাবেই আমাদের যাবতীয় পরিকল্পনা করতে হবে।’

তবে সুনীলের মতো এতটা তেতে থাকতে পারছেন না জাতীয় দলের কোচ ইগর স্টিমাচ। কারণ এ বার তাঁর দলের কোনও প্রস্তুতিই নেওয়া হয়নি। কলকাতায় শিবির হওয়ার কথা থাকলেও করোনার জন্য ভেস্তে গিয়েছে। স্টিমাচ বলেছেন, ‘খেলতে যাওয়ার জন্য এটা একেবারেই সঠিক সময় নয়। কারণ আমাদের সে ভাবে প্রস্তুতিই নেই। করোনার জন্য কলকাতায় শিবির করার পরিকল্পনা পুরো ভেস্তে গিয়েছে। তবে আমরা সবাই মিলে সেরাটা দিতে চেষ্টা করব।’ 

মূলত কাতারে গিয়েই শিবির করবে ভারত। ওখানেই যা প্রস্তুতি নেওয়ার নেবে। সে কারণেই ২৮ জনের দল নিয়ে দোহা যাচ্ছেন স্টিমাচ। বুধবার রাতেই নয়াদিল্লি থেকে বিশেষ বিমানে দোহা উড়ে যাবে ভারতীয় দল। তবে তার আগে পুরো ভারতীয় দলই গত ১৫ মে থেকে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। সকলের করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরই চূড়ান্ত দল ঘোষণা করা হয়েছে। 

যোগ্যতা অর্জন পর্বে ভারতকে খেলতে হবে কাতার (৩ জুন), বাংলাদেশ (৭ জুন) এবং  আফগানিস্তানের (১৫ জুন) বিরুদ্ধে। এশিয়ান কাপের জন্য যোগ্যতা অর্জন করে ২০২৩-এ চিনে এই টুর্নামেন্ট খেলতে যেতে হবে।

২৮ জনের ভারতীয় দল--

গোলরক্ষক : গুরপ্রীত সিং সান্ধু, অমরিন্দর সিং, ধীরজ সিং।

রক্ষণ : প্রীতম কোটাল, রাহুল ভেকে, নরেন্দর গেহলট, চিংলেনসানা সিং, সন্দেশ ঝিঙ্গান, আদিল খান, আকাশ মিশ্র, শুভাশিস বোস। 

মাঝমাঠ : উদান্ত সিং, ব্রেন্ডন ফার্নান্ডেজ, লিস্টন কোলাসো, রাওলিন বোর্জেস, গ্লেন মার্টিনস, অনিরুদ্ধ থাপা, প্রণয় হালদার, সুরেশ ওয়াংজাম, লালেংমাওইয়া রালতে, সাহাল আব্দুল সামাদ, মহম্মদ ইয়াসির, লালিয়ানজুয়ালা ছাংতে, বিপিন সিং, আসিক কুরিয়ান।

ফরোয়ার্ড : ইশান পান্ডিতা, সুনীল ছেত্রী, মনবীর সিং।

বন্ধ করুন