বাংলা নিউজ > ময়দান > সাগর রানা হত্যা মামলায় সুশীল কুমারকে ৬ দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠাল আদালত
গ্রেফতার হওয়ার পর সুশীল কুমার। ছবি- সোশ্যাল মিডিয়া।
গ্রেফতার হওয়ার পর সুশীল কুমার। ছবি- সোশ্যাল মিডিয়া।

সাগর রানা হত্যা মামলায় সুশীল কুমারকে ৬ দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠাল আদালত

  • ক্রমাগত ঠিকানা বদল করে লুকোচুরির পর শেষমেশ গ্রেফতার হন জোড়া অলিম্পিক পদকজয়ী কুস্তিগীর।

ছত্রসাল স্টেডিয়ামে সাগর রানা হত্যা মামলায় গ্রেফতার হওয়া সুশীল কুমারকে ৬ দিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠাল আদালত। যদিও দিল্লি পুলিশের তরফে তারকা কুস্তিগীরকে ১২ দিন হেফাজতে রাখতে চেয়ে আবেদন করা হয়েছিল।

৪ মে রাতে ছত্রসাল স্টেডিয়ামের পার্কিং জোনে প্রাক্তন জুনিয়র ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন ২৩ বছরের সাগর রানা খুন হন। সিসিটিভ ফুটেজ ও অন্যন্য সূত্র থেকে পুলিশ ঘটনার সঙ্গে সুশীল প্রত্যক্ষভাবে জড়িত রয়েছেন বলে প্রমাণ পায়। যদিও সেই থেকেই পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন জোড়া অলিম্পিক পদকজয়ী তারকা।

তিন সপ্তাহ পরে অবশেষে দিল্লির মুণ্ডকা অঞ্চল থেকে গ্রেফতার করা হয় সুশীল ও তাঁর অনুগামী অজয় কুমারকে। সুশীলের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল আগেই। পরে সুশীলের খোঁজ দেওয়ার জন্য দিল্লি পুলিশ ১ লক্ষ টাকা পুরস্কারও ঘোষণা করে। অজয় কুমারের খোঁজ দেওয়ার জন্যও ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিল পুলিশের তরফে।

গ্রেফতার করার পর তড়িঘড়ি সুশীলকে আদালতে তোলা হয়। সেখানেই তাঁকে ৬ দিনের পুলিশি হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়।

পুলিশ সূত্রেই জানা যাচ্ছে যে, সুশীল ঘটনার পরে উত্তরাখণ্ডে গিয়েছিলেন। হরিদ্বারে কয়েকদিন থাকার পর দিল্লিতে ফেরেন তিনি। দিল্লি থেকে পঞ্জাব ও হরিয়ানার যান। পরে ফের দিল্লিতে ফেরেন সুশীল। অনুমান করা হচ্ছে যে, নিজের অবস্থান লুকোতেই ক্রমাগত ঠিকানা বদল করছিলেন তারকা কুস্তিগীর।

বন্ধ করুন