বাংলা নিউজ > ময়দান > T20 WC: অশ্বিনকে দলে ফেরাতে বড় হাত হিটম্যানের, এর মধ্যেই কি আছে ভবিষ্যতের ইঙ্গিত?
আইপিএলে রোহিত শর্মা এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ছবি- বিসিসিআই।
আইপিএলে রোহিত শর্মা এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ছবি- বিসিসিআই।

T20 WC: অশ্বিনকে দলে ফেরাতে বড় হাত হিটম্যানের, এর মধ্যেই কি আছে ভবিষ্যতের ইঙ্গিত?

  • ২০১৭ সালের জুলাইয়ে শেষবার ভারতের হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলেছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। 

আসন্ন বিশ্বকাপের জন্য সম্প্রতি ভারতীয় দল ঘোষণা করেছেন জাতীয় নির্বাচকরা। দলে বেশ কিছু চমকের মধ্যে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের চার বছরেরও অধিক সময় পরে ভারতীয় টি-টোয়েন্টি দলে ফেরা অন্যতম। অশ্বিনকে দলে নেওয়ার পিছনে তাঁর আইপিএলের পারফরম্যান্সই মূল কারণ বলে আগেই জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা। তবে রোহিত শর্মারও অশ্বিনের সাদা বলের ক্রিকেটে ওয়াপসির পিছনে বড় ভূমিকা রয়েছে। 

Times of India-এ প্রকাশিত এক রিপোর্ট অনুযায়ী, টি-টোয়েন্টি দল নির্বাচনের আগে ভারতীয় নির্বাচকরা রোহিত শর্মার মতামত জিজ্ঞেস করেছিলেন। সেখানেই রোহিত অশ্বিনের নাম প্রস্তাব করেন এবং অধিনায়ক বিরাট কোহলিও রোহিতের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানান। আইপিএলে বিগত কয়েক বছরে অশ্বিন খুব বেশি রান দেননি এবং বিশেষত সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর পিচগুলির কথা মাথায় রেখেই অশ্বিনকে দলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। 

আইপিএলের শেষ হওয়ার প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই বিশ্বকাপ শুরু হওয়ায় ব্যবহৃত পিচগুলি অত্যন্ত মন্থর হওয়ারই সম্ভাবনা যেখানে অশ্বিনকে মারা খুবই কঠিন হতে পারে। কোহলি-রোহিত এর ওপর ভর করেই অভিজ্ঞ স্পিনারকে দলে নেওয়ার জন্য নিজেদের মতামত জানান। ওয়াশিংটন সুন্দরকে ব্য়াক করে তাঁকেই দলের প্রধান অফস্পিনার হিসাবে খেলানোর নিজের ইচ্ছার কথা কোহলি আগেই জানিয়েছিলেন। তবে চোটগ্রস্থ সুন্দর না থাকায় দলে অফস্পিনারের জায়গা ফাঁকা ছিল। সেই জায়গাতেই অশ্বিন দলে আসেন।

একই রিপোর্ট দাবি করা হয় মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে প্রচুর সাফল্য লাভের পর সাদা বলের ক্রিকেটে ভারতীয় বোর্ডের একাংশ লিডারশিপ গ্রুপে রোহিতের ক্ষমতা আরও বৃদ্ধি করতে চায়। জাতীয় দলে এমনিতেও সর্বাধিক মুম্বই ফ্রাঞ্চাইজির ক্রিকেটাররাই রয়েছেন। মুশকিল পরিস্থিতিতে তাঁদের নিরন্তর জয়ের মানসিকতা যে নিঃসন্দেহে কাজে লাগবে, তা আলাদা করে বলে দিতে লাগে না। মুম্বইয়ের ব্র্যান্ডের ক্রিকেট খেলার লক্ষ্যেই আগ্রহী ভারতীয় দল।

সাম্প্রতিক সময়ে আইসিসি টুর্নামেন্টে ভারতের লাগাতার ব্যর্থতায় কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠেছে। অনেকেই মনে করছেন আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপই অধিনায়ক কোহলির কাছে শেষ সুযোগ হতে চলেছে। বহু জনের তালিকায় কোহলির বদলে অধিনায়কের পদে প্রথম পছন্দ রোহিত। তাই অশ্বিনকে দলে নেওয়ার এই সিদ্ধান্তের মধ্যে দিয়ে ভবিষ্যতের ইঙ্গিত মিললেও মিলতে পারে।  

বন্ধ করুন