বাংলা নিউজ > ময়দান > ওয়ান ডে ক্রিকেটে প্রথম কনকাশন পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নামলেন তাস্কিন
হেলমেটে বল লাগার পর সইফুদ্দিন। ছবি- গেটি।
হেলমেটে বল লাগার পর সইফুদ্দিন। ছবি- গেটি।

ওয়ান ডে ক্রিকেটে প্রথম কনকাশন পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নামলেন তাস্কিন

  • চামীরার বাউন্সারে মাথায় চোট পান মহম্মদ সইফুদ্দিন।

সাম্প্রতিক সময়ে টেস্ট ক্রিকেট কনকাশন পরিবর্ত নিতান্ত কম চোখে পড়েনি। তবে ছেলেদের ওয়ান ডে ক্রিকেটে এই প্রথম। ঢাকায় শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে বাংলাদেশের অল-রাউন্ডার মহম্মদ সইফুদ্দিন ব্যাট করার সময় মাথায় চোট পেলে তাঁর কনকাশন পরিবর্ত হিসেবে মাঠে নামেন তাস্কিন আহমেদ।

বাংলাদেশ ইনিংসের ৪৭তম ওভারে দুষ্মন্ত চামীরার শর্ট বল সইফুদ্দিনের হেলমেটে আঘাত করে। সইফুদ্দিন বলটিকে হুক করার চেষ্টা করেছিলেন। তবে কানেক্ট হয়নি। সেই বলেই রান-আউট হন সইফুদ্দিন।

পরে আর ফিল্ডিং করতে নামেননি সইফুদ্দিন। লাইক-ফর-লাইক রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে তাস্কিন মাঠে নামেন এবং বাংলাদেশের তৃতীয় বোলার হিসেবে বোলিংও করেন। তাস্কিন সিরিজের প্রথম ওয়ান ডে ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন। ব্যাটিং করার সুযোগ হয়নি। তবে বল হাতে মোটেও প্রভাবশালী ছিলেন না ডানহাতি পেসার। তিনি প্রথম ম্যাচে ৬২ রান খরচ করেও কোনও উইকেট তুলতে পারেননি।

বাংলাদেশের হয়ে দ্বিতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে ব্যাট হাতে দুরন্ত শতরান করেন মুশফিকুর রহিম। একদিক দিয়ে যখন পরপর উইকেট পড়ছে, মুশফিকুর নিঃশব্দে অন্য প্রান্ত দিয়ে দলের জন্য রান সংগ্রহ করেন। মাত্র ১টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৭০ বলে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মুশফিক। তিনি শতরান পূর্ণ করেন ৬টি বাউন্ডারির সাহায্যে ১১৪ বলে। শেষমেশ ১০টি বাউন্ডারির সাহায্যে ১২৭ বলে ১২৫ রান করে চামীরাকেই উইকেট দেন রহিম। ওয়ান ডে ক্রিকেটে এটি মুশফিকুরের ৮ নম্বর শতরান।

বন্ধ করুন