বাংলা নিউজ > ময়দান > যা চাওয়া হয়েছিল, পাওয়া গিয়েছে, জাতীয় দলে ২৭ বছর বয়সী নাইট তারকার উন্নতি দেখে আহ্লাদে আটখানা দ্রাবিড়
নাইট তারকার উন্নতি দেখে আপ্লুত দ্রাবিড়। ছবি- বিসিসিআই/টুইটার।

যা চাওয়া হয়েছিল, পাওয়া গিয়েছে, জাতীয় দলে ২৭ বছর বয়সী নাইট তারকার উন্নতি দেখে আহ্লাদে আটখানা দ্রাবিড়

  • পছন্দের ব্যাটিং স্লট ছেড়ে জাতীয় দলের মিডল অর্ডারের চ্যালেঞ্জ যথাযথ গ্রহণ করেছেন KKR-এর তারকা অল-রাউন্ডার।

সম্ভাবনা দেখিয়েছিলেন অভিষেক সিরিজেই। অল্প সুযোগেই জাতীয় দলে যেভাবে উন্নতির লক্ষণ দেখিয়েছেন বেঙ্কটেশ আইয়ার, তাতে ২৭ বছর বয়সী নাইট তারকাকে নিয়ে আপ্লুত রাহুল দ্রাবিড়। বিশেষ করে পছন্দের ওপেনিং স্লট ছেড়ে মিডল অর্ডারে নিজের দায়িত্ব যেভাবে যথাযথ বুঝে নিচ্ছেন এবং সেই সঙ্গে অল-রাউন্ডার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করছেন আইয়ার, তাতে কার্যত আহ্লাদে আটখানা টিম ইন্ডিয়ার হেড কোচ।

আইপিএলে দুরন্ত পারফর্ম্যান্স উপহার দেওয়ার পর গতবছর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক টি-২০ ক্রিকেটে অভিষেক হয় বেঙ্কটেশ আইয়ারের। কিউয়িদের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচে ব্যাট করতে নেমে আইয়ার যথাক্রমে ৪, অপরাজিত ১২ ও ২০ রান সংগ্রহ করেন। একটি ম্যাচে বল করে ১টি উইকেটও নেন তিনি। কেকেআরের হয়ে ওপেন করলেও জাতীয় দলের মিডল অর্ডারে ব্যাট করতে হয় বেঙ্কটেশকে। তাঁর প্রথম সিরিজের পরিসংখ্যান আহামরি না দেখালেও বিস্তর সম্ভাবনা লক্ষ্য করা গিয়েছিল নাইট তারকার মধ্যে।

মাঝে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের ওয়ান ডে স্কোয়াডে ঢুকে পড়েন। ব্যাটে-বলে নজর কাড়তে না পারায় ওয়ান ডে দল থেকে বাদও পড়তে হয় আইয়ারকে। এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে তুলনায় চমকপ্রদ পারফর্ম্যান্স উপহার দেন তিনি। তিন ম্যাচে বেঙ্কটেশ সংগ্রহ করেন যথাক্রমে অপরাজিত ২৪, ৩৩ ও অপরাজিত ৩৫ রান। সেই সঙ্গে সিরিজে ২টি উইকেটও নিয়েছেন তিনি।

বেঙ্কটেশের এমন উন্নতি দেখে সিরিজ শেষে দ্রাবিড় বলেন, ‘সিরিজটা আমাদের সত্যিই দারুণ কেটেছে। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনটি টি-২০'র পর ওর (বেঙ্কটেশ আইয়ারের) মধ্যে সম্ভাবনা লক্ষ্য করা গিয়েছিল। আমরা ওর সামনে ছবিটা স্পষ্ট করে দিয়েছিলাম যে, ওকে কোন ভূমিকায় দেখতে চাইছে দল। আমি জানি আইপিএলে একটু অন্য ভূমিকায় দেখা যায় ওকে। তবে জাতীয় দলের প্রথম তিনে যেহেতু জায়গা ফাঁকা নেই, তাই এই পরিস্থিতিতে কোন জায়গায় ওকে ফাঁক পূরণ করতে হবে, সেটা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছিল। আমরা ওকে চ্যালেঞ্জ করি এবং এই পজিশনে ব্যাট করার দায়িত্ব তুলে দিই। বিরতি থেকে ফিরে প্রত্যেকটা ম্যাচে ও নিজেকে পরিণত করেছে। ওর পারফর্ম্যান্সের এই উন্নতিটাই আনন্দ দিচ্ছে। এটাই তো দেখতে চাওয়া হচ্ছিল।'

বন্ধ করুন