বাংলা নিউজ > ময়দান > অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতে উদ্যোগী সচিন, বাড়িয়ে দিলেন সাহায্যের হাত
সচিন তেন্ডুলকর।
সচিন তেন্ডুলকর।

অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতে উদ্যোগী সচিন, বাড়িয়ে দিলেন সাহায্যের হাত

  • করোনা সংক্রমণের জেরে ভারতে সঙ্কটজনক অবস্থা চলছে। অক্সিজেনের মারাত্মক অভাব দেখা দিয়েছে। অক্সিজেনের অভাবেই বহু করোনা আক্রান্ত রোগী মারা যাচ্ছেন।

করোনার জন্য় দেশ জুড়ে মারাত্মক ভাবে অক্সিজেনের অভাব দেখা দিয়েছে। অক্সিজেনের অভাবে বহু করোনা আক্রান্ত রোগী মারা যাচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে এ বার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন সচিন তেন্ডুলকরও। ১কোটি টাকা অনুদান দিলেন তিনি।

বৃহস্পতিবার সচিন নিজের টুইটার হ্যান্ডলে লিখেছেন, ‘কোভিডে দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর স্বাস্থ্য পরিষেবা মারাত্মক ভাবে চাপে পড়ে গিয়েছে। এই মুহূর্তে বড় অঙ্কের কোভিড রোগীদের জন্য অক্সিজেন খুব প্রয়োজনীয় বিষয় হয়ে উঠেছে। দেখে ভাল লাগছে, এই পরিস্থিতিতে সকলে এগিয়ে আসছে। ২৫০-এর উপর কিছু যুবক-যুবতী মিশন অক্সিজেন নামক একটি প্রকল্প শুরু করেছে। তারা অর্থ সংগ্রহ করে, সেটা দিয়ে অক্সিজেন আমদানি করে, সেগুলি দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে দান করছে। আমি এই উদ্যোগে সামিল হয়ে সাহায্য করেছি। যাতে ওরা দেশের আরও হাসপাতালে তাড়াতাড়ি পৌঁছে যেতে পারে।’ এরই সঙ্গে তিনি লিখেছেন, ‘আমি যখন খেলতাম আপনাদের সমর্থনে অনেক সাফল্য পেয়েছি। এই মুহূর্তে যারা এই অতিমারীর সঙ্গে লড়াই করছে, তাঁদের সাহায্য করতে আমাদের একসঙ্গে দাঁড়াতে হবে।’

সচিন নিজেও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। এমন কী তাঁকে হাসপাতালেও ভর্তি থাকতে হয়। নিজে করোনা মুক্ত হওয়ার পর, এই অতিমারীর সঙ্গে লড়াইয়ে যাতে প্রত্যেকে জয়ী হন, এ বার সেই চেষ্টাই করছেন সচিন। তার জন্য তিনি ইতিমধ্যেই এক কোটি টাকা দান করেছেন।

এর আগে প্যাট কামিন্স, ব্রেট লি, রিকি পন্টিং, শ্রীবৎস্য গোস্বামীরা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। রাজস্থান রয়্যালস এবং দিল্লি ক্যাপিটাসলের তরফেও বড় অঙ্কের টাকা দিয়ে সাহায্য করা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াইয়ের জন্য সকলের সাহায্যই হয়তো এই বিপদের হাত থেকে ভারতকে মুক্ত করবে।

বন্ধ করুন