বাংলা নিউজ > ময়দান > অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে পারবেন জোকার? অজি সরকারের তরফে মিলল বড় ইঙ্গিত

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে পারবেন জোকার? অজি সরকারের তরফে মিলল বড় ইঙ্গিত

নোভক জোকোভিচ।

কোভিড ভ্যাকসিন নেবেন না- এই জেদ বজায় রাখতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছিলেন সার্বিয়ান তারকা। ২০২২ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জোকারকে না খেলতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত আদালতে গড়িয়েছিল। শেষ পর্যন্ত করোনার টিকা না নেওয়ার কারণে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলা হয়নি জোকোভিচের।

কোভিড ভ্যাকসিন না নিয়েও কি আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে পারেন নোভক জোকোভিচ। তেমনই কিন্তিু ইঙ্গিত দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার সরকার। নিজের জেদ বজায় রেখেই জোকার এই বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন খেলবেন বলে জানা গিয়েছে।

কোভিড ভ্যাকসিন নেবেন না- এই জেদ বজায় রাখতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছিলেন সার্বিয়ান তারকা। ২০২২ অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে জোকোভিচকে না খেলতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত আদালতে গড়িয়েছিল। শেষ পর্যন্ত করোনার টিকা না নেওয়ার কারণে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলা হয়নি তাঁর। আগামী বছর অবশ্য সেই সমস্যা থাকছে না। অস্ট্রেলিয়ার সরকার ঠিক করেছে, জোকোভিচ টিকা না নিলেও ভিসা দেওয়া হবে তাঁকে। তাঁর খেলাতে কোনও সমস্যা থাকবে না।

আরও পড়ুন: জকোভিচের ‘রহস্য ড্রিঙ্কস’ নিয়ে এই প্রথমবার মুখ খুললেন নোভাকের স্ত্রী জেলেনা

এই বছর জোকোভিচ প্রতিযোগিতায় খেলতে অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছলেও, তাঁকে বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়। তাঁর অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক বিতর্ক তৈরি হয়ে অস্ট্রেলিয়ায়। বিষয়টি আদালতে গড়ায়। রায় জোকোভিচের পক্ষে গেলেও শেষরক্ষা হয়নি। রাজনৈতিক বিতর্ক ঠেকাতে অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসন মন্ত্রী বিশেষ ক্ষমতা ব্যবহার করে তাঁর ভিসা বাতিল করে দেন।

অস্ট্রেলিয়ার অভিবাসনমন্ত্রী অ্যান্ড্রু জাইলস অবশ্য এ বার বলেছেন, ‘এখন ভিসার প্রক্রিয়ায় বিশেষ কোনও নির্দেশ নেই। সঠিক সময়ে যে ভাবে ভিসা দেওয়া হয়, সে ভাবেই দেওয়া হবে। কারও জন্য আলাদা কোনও নিয়ম থাকবে না। সকলকে সময় মতো ভিসা দেওয়া হবে। মনে হয় না, জোকোভিচের জন্য আলাদা কিছু প্রয়োজন হবে।’

আরও পড়ুন: শুরু আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন ম্যাচ, ডোপিংয়ের দায়ে সাসপেন্ড হয়ে বললেন সিমোনা

গত মে মাসে অস্ট্রেলিয়ায় ক্ষমতায় এসেছে নতুন সরকার। প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন অ্যান্টনি অ্যালবানিজ। তার পরেই পুরো পরিস্থিতি পাল্টে গিয়েছে। এখন নতুন সরকার কোভিড বিধি শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যে কারণে অস্ট্রেলিয়ায় যেতে হলে বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে না করোনার ভ্যাকসিন। স্বাভাবিক ভাবে জোকারের ক্যাঙ্গারুর দেশে প্রবেশ করতে কোনও সমস্যা থাকছে না।

সেই সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশের ক্ষেত্রে জোকোভিচের উপর যে তিন বছরের নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল, সেটাও প্রত্যাহারের ইঙ্গিত দিয়েছেন নতুন অভিবাসন মন্ত্রী অ্যান্ড্রু জাইলস। জোকোভিচকে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে খেলতে দেওয়ার ব্যাপারেও সম্মত হয়েছেন। জাইলস বলেছেন, ‘জোকোভিচ অস্ট্রেলিয়ায় খেলতে পছন্দ করে। আমি জানি ও এথানে খেলতে চায়। আশা করি, সরকার সেটা বুঝবে। এখানে খেলে ও আবার সাফল্য পাবে সেই কামনা করি। আমি আশাবাদী যে দু’পক্ষই একটা সিদ্ধান্তে আসতে পারবে।’

বন্ধ করুন