বাংলা নিউজ > ময়দান > কোটি কোটি মানুষকে অনুপ্রাণিত করার জন্য ধন্যবাদ, বিশেষ দিনে সচিনকে BCCI-এর কুর্নিশ
কেরিয়ারের প্রথম ও শেষ টেস্টে সচিন। ছবি- টুইটার (BCCI)।
কেরিয়ারের প্রথম ও শেষ টেস্টে সচিন। ছবি- টুইটার (BCCI)।

কোটি কোটি মানুষকে অনুপ্রাণিত করার জন্য ধন্যবাদ, বিশেষ দিনে সচিনকে BCCI-এর কুর্নিশ

  • ঐতিহাসিক দিনে দুই কিংবদন্তিকে স্যালুট জানাল ICC।

৩১ বছর আগে ঠিক এই দিনটিতেই প্রথমবার 'ঈশ্বরের' দর্শন পেয়েছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। ১৯৮৯ সালের ১৫ নভেম্বর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল সচিন তেন্ডুলকরের।

প্রায় আড়াই দশক ক্রিকেটবিশ্বে দাপিয়ে বেড়ানোর পর কাকতলীয়ভবে ঠিক এই দিনটিতেই অস্তাচলে ঢলে পড়েছিল তেন্ডুলকরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার। ২০১৩ সালের ১৫ নভেম্বর শেষবার ভারতের হয়ে ব্যাট করতে মাঠে নেমেছিলেন তিনি।

ভারতীয় তথা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের এমন স্মরণীয় দিনে বিসিসিআই কৃতজ্ঞতা জানাল সচিনকে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পাশাপাশি আইসিসিও এমন ঐতিহাসিক দিনের কথা তুলে ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভারতীয় বোর্ড টুইটারে বিশেষ বার্তা পোস্ট করে কুর্নিশ জানায় তেন্ডুলকরকে। বিসিসিআই লেখে, ‘১৯৮৯ সালে আজকের দিনেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন সচিন তেন্ডুলকর। ২০১৩ সালে কিংবদন্তি শেষবার টিম ইন্ডিয়ার হয়ে ব্যাট করতে নেমেছিলেন। সারা বিশ্বে কোটি কোটি মানুষকে অনুপ্রাণিত করার জন্য ধন্যবাদ।’

সচিনের সঙ্গে একই ম্যাচে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল আরও এক কিংবদন্তির। পাক পেসার ওয়াকার ইউনিস পরবর্তী সময়ে নিজের গতি ও স্যুইং দিয়ে মাতিয়ে রাখেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। একই সঙ্গে দুই লেজেন্ড আত্মপ্রকাশ করায় সঙ্গত কারণেই ১৫ নভেম্বরকে ঐতিহাসিক দিন হিসেবে চিহ্নিত করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা।

আইসিসি টুইট করে, ‘ঐতিহাসিক দিন। ক্রিকেটের জিনিয়াসরা। ১৯৮৯ সালে এই দিনটিতেই কিংবদন্তি ভারতীয় ব্যাটসম্যান সচিন তেন্ডুলকর ও পাকিস্তানের বোলিং রত্ন ওয়াকার ইউনিসের করাচিতে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল।’

বন্ধ করুন