বাংলা নিউজ > ময়দান > রুটরা পারেননি, বেয়ারস্টো করে দেখালেন, জনির শতরানে সিডনি টেস্টে পালটা লড়াই ইংল্যান্ডের
বেয়ারস্টোর শতরান। ছবি- আইসিসি।
বেয়ারস্টোর শতরান। ছবি- আইসিসি।

রুটরা পারেননি, বেয়ারস্টো করে দেখালেন, জনির শতরানে সিডনি টেস্টে পালটা লড়াই ইংল্যান্ডের

  • ব্যাট হাতে চূড়ান্ত ব্যর্থ জো রুট ও জোস বাটলার।

অবশেষে চলতি অ্যাসেজ সিরিজের চতুর্থ টেস্টে এসে ইংল্যন্ডের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরি করলেন জনি বেয়ারস্টো। নাহলে জো রুট ছাড়া আর কাউকেই ব্যাট হাতে তেমন একটা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে দেখা যায়নি চলতি সিরিজে। যদিও রুট-সহ ইংল্যান্ডের আর কোনও ব্যাটসম্যানই এই সিরিজে শতরানের গণ্ডি টপকাতে পারেননি।

রুট অবশ্য সিডনি টেস্টের প্রথম ইনিংসে চূড়ান্ত ব্যর্থ হলেন। খাতা খুলতেই পারেননি ব্রিটিশ দলনায়ক। একবার ভাগ্যের সহায়তা পাওয়া বেন স্টোকস ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করে সাজঘরে ফেরেন। পরে মার্ক উডকে নিয়ে লড়াই চালান বেয়ারস্টো। মূলত জনির শতরানে ভর করেই ইংল্যান্ড কিছুটা হলেও পালটা লড়াই ফিরিয়ে দেয় অজি শিবিরে।

প্রথম ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার ৮ উইকেটে ৪১৬ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইংল্যান্ড দ্বিতীয় দিনের শেষে বিনা উইকেটে ১৩ রান তুলেছিল। তার পর থেকে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে ইংল্যান্ড একসময় ৩৬ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে। হাসিব হামিদ ৬, জ্যাক ক্রাউলি ১৮, ডেভিড মালান ৩ ও জো রুট ০ রানে আউট হন।

একবার বোল্ড হয়েও বেল না পড়ায় বেঁচে যাওয়া বেন স্টোকস শেষমেশ ৯টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ৯১ বলে ৬৬ রান করে ক্রিজ ছাড়েন। খাতা খুলতে পারেননি জোস বাটলার। মার্ক উড ৩৯ রানের উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন। তৃতীয় দিনের শেষে বেয়ারস্টো ১০৩ রান করে অপরাজিত রয়েছেন। ১৪০ বলের ইনিংসে তিনি ৮টি চার ও ৩টি ছক্কা মেরেছেন। জ্যাক লিচ নট-আউট রয়েছেন ব্যক্তিগত ৪ রানে। ইংল্যান্ড তৃতীয় দিনের শেষে তাদের প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটের বিনিময়ে ২৫৮ রান তুলেছে।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন প্যাট কামিন্স ও স্কট বোল্যান্ড। ১টি করে উইকেট দখল করেন মিচেল স্টার্ক, ক্যামেরন গ্রিন ও ন্যাথন লিয়ঁ। আপাতত প্রথম ইনিংসের নিরিখে অস্ট্রেলিয়ার থেকে ১৫৮ রানে পিছিয়ে রয়েছে ইংল্যান্ড।

বন্ধ করুন