বাংলা নিউজ > ময়দান > সৌরভ-শাহের প্রশাসনিক বুদ্ধিতে আইসিসি-র থেকে করের অর্থ উদ্ধার করল বিসিসিআই
বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে জয় শাহ
বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে জয় শাহ

সৌরভ-শাহের প্রশাসনিক বুদ্ধিতে আইসিসি-র থেকে করের অর্থ উদ্ধার করল বিসিসিআই

  • বিসিসিআই-এর তরফ থেকে কেন্দ্রীয় সরকারকে যে কর দিতে হত, ভারতীয় বোর্ডের হয়ে তা দেবে আইসিসি। সৌরভের চেষ্টায় লক্ষ্মীলাভ হল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জন্য ১,৫০০ কোটি টাকা বেঁচে গেল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের।

বিসিসিআই-এর তরফ থেকে কেন্দ্রীয় সরকারকে যে কর দিতে হত, ভারতীয় বোর্ডের হয়ে তা দেবে আইসিসি। সৌরভের চেষ্টায় লক্ষ্মীলাভ হল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জন্য ১,৫০০ কোটি টাকা বেঁচে গেল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের। আগামী দশ বছরে তিনটি বড় প্রতিযোগিতা পেল বিসিসিআই। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে বিসিসিআই-এর যে আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে সেই বিষয়টি আইসিসি-র বোর্ড মিটিংয়ে তোলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও জয় শাহ। তারপরেই ঠিক হয়ে যায়, ভারতীয় বোর্ডকে ২০ কোটি ডলার (প্রায় ১,৫০০ কোটি টাকা) কর দিতে হবে না।

আইসিসি-র বোর্ড মিটিংয়ে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও জয় শাহ বলেন, ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০২৩ সালের একদিনের ক্রিকেটের বিশ্বকাপ থেকে ভারতীয় বোর্ডের ১০ কোটি ডলার (প্রায় ৭৫০ কোটি টাকা) ক্ষতি হয়েছে। কারণ এই পরিমাণ টাকা তাদের কর হিসেবে দিতে হয়েছে। এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সংযুক্ত আরব আমিরশাহির বদলে ভারতে হলে ক্ষতির অঙ্কটা বেড়ে ১৫ কোটি ডলার হত। 

সৌরভরা প্রশ্ন তোলেন, যেখানে তাঁদের কোনও ভূমিকা বা দোষ নেই, সেখানে তাঁদের কেন এত টাকা ক্ষতির বোঝা বহন করতে হবে। সৌরভরা বলেন, সব দেশের ক্রিকেট বোর্ডই তাদের সরকারের থেকে কর ছাড় পায়। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার শুধু ক্রিকেটের জন্য আইন বদলাবে না। তাই তাদের এই করের বোঝা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক। এরপর আইসিসি-র সদস্যরা সিদ্ধাম্ত নেন, বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থাই এই টাকা দিয়ে দেবে। এরফলে বিসিসিআই-এর তহবিলে ১,৫০০ কোটি টাকা বেঁচে গেল।

বন্ধ করুন