বাংলা নিউজ > ময়দান > মাংস না খেলে হবে না পেশি! ভক্তের মন্তব্যে মোক্ষম জবাব বিরাট কোহলির

মাংস না খেলে হবে না পেশি! ভক্তের মন্তব্যে মোক্ষম জবাব বিরাট কোহলির

বিরাট কোহলি। ফাইল ছবি

বিরাট তাঁর অফিসিয়াল ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা গেছে একটি রানিং মেশিনে দৌড়ে তিনি ঘাম ঝরাচ্ছেন। ক্যাপশনে লেখা 'ব্যাক অ্যাট ইট'। অর্থাৎ ফের ফিরে এসেছি।

শুভব্রত মুখার্জি: ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম ফিট ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। প্রাক্তন অধিনায়ক ফিটনেসের প্রতি আলাদা করে যত্ন নেন। তাঁর সময়ে ভারতীয় দলের ফিল্ডিংয়েও দারুণ উন্নতি হয়েছিল। জিমে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় কাটান তিনি। বাংলাদেশ সফর তাঁর পরবর্তী লক্ষ্য। তাঁর আগে নিজেকে ঘষেমেজে ফের তৈরি করে নিচ্ছেন তিনি। টাইগারদের বিরুদ্ধে সিরিজের আগে অল্প থেকে বিশ্রাম পেয়েছেন কোহলি। এমন সময়ে জিমে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন তারকা। সেই ভিডিয়ো তিনি পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়াতে। সেখানে এক ভক্ত মন্তব্য করেন সবাই বলে মাংস না খেলে নাকি পেশি হয় না! আর ভক্তকে এর উত্তরেই মোক্ষম জবাব দিয়েছেন বিরাট।

বিরাট তাঁর অফিসিয়াল ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা গেছে একটি রানিং মেশিনে দৌড়ে তিনি ঘাম ঝরাচ্ছেন। ক্যাপশনে লেখা 'ব্যাক অ্যাট ইট'। অর্থাৎ ফের ফিরে এসেছি। সেখানে এক ভক্ত মন্তব্য করেন 'ওরা বলে তোমার পেশি কখনও গঠন হবে না যদি তুমি না মাংস খাও।' যার উত্তরে বিরাট জানান 'হাহাহা বিশ্বের সবথেকে ভ্রান্ত ধারণা।' অর্থাৎ এক বাক্যের উত্তরে বিরাট বুঝিয়ে দিয়েছেন তাঁর সেই ভক্তের বা বাকিদের এই ধারণাটি কত বড় ভুল।

প্রসঙ্গত ছোটবেলা থেকে ননভেজ খেতেই পছন্দ করতেন বিরাট। তবে এখন বয়স ধীরে ধীরে বাড়ছে। তাই ৩৪ বছর বয়সি প্রাক্তন অধিনায়ক তাঁর স্বাস্থ্যের কথা মাথাতে রেখে এখন পুরোপুরি নিরামিষাশী হয়ে গিয়েছেন। উল্লেখ্য টি-২০ বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে অনবদ্য ফর্মে ছিলেন বিরাট। তিনি ২৯৬ রান করেছিলেন। বিশ্বকাপে ভারত সেমিফাইনাল থেকেই ছিটকে যায়। ভারত এই মুহূর্তে নিউজিল্যান্ড সফরে রয়েছে। যেখানে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে কোহলিকে। পাশাপাশি বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে রোহিত শর্মা, কেএল রাহুল, রবিচন্দ্রন অশ্বিনদেরও।

কিঊয়িভূমে ভারত ইতিমধ্যেই টি-২০ সিরিজ জিতে ফেলেছে। তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টিতে ভেস্তে যায়। দ্বিতীয় ম্যাচে জেতে ভারত। আর তৃতীয় ম্যাচে যখন বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হয় তখন দুই দল ডাক ওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতি অনুযায়ী টাই অবস্থায় ছিল। ফলে হার্দিক পান্ডিয়ার নেতৃত্বে ভারত ১-০ ফলে সিরিজ জেতে। এরপর শিখর ধাওয়ানের নেতৃত্বে ভারতীয় দল ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ডের।

বন্ধ করুন