বাড়ি > ময়দান > প্রস্তুত থাকবে আইসোলেশন রুম, বাড়ি থেকেই খেলার পোশাক পরে অনুশীলনে আসতে হবে ক্রিকেটারদের
ইডেন গার্ডেন্স। ছবি- রয়টার্স।
ইডেন গার্ডেন্স। ছবি- রয়টার্স।

প্রস্তুত থাকবে আইসোলেশন রুম, বাড়ি থেকেই খেলার পোশাক পরে অনুশীলনে আসতে হবে ক্রিকেটারদের

  • অনুশীলন শুরুর আগে স্বাস্থ্যবিধি জারি করল বাংলার ক্রিকেট সংস্থা।

সিএবির অন্দরমহলে ঢুকে পড়েছে করোনা ভাইরাস। বাংলার রঞ্জিজয়ী দলের সদস্য তথা নির্বাচক সাগরময় সেন শর্মা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এমন উদ্বেগের আবহেও খেলা থেকে নজর সরছে না বাংলার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের। লকডাউন পরবর্তী সময়ে ক্রিকেটারদের অনুশীলনে ফেরাতে তৎপর তারা। সেইমতো প্রস্তুতি শুরু করেছে সিএবি।

আইসিসি ও বিসিসিআইয়ের গাইডলাইন মেনেই ক্রিকেটারদের জন্য নির্দিষ্ট একটি স্বাস্থ্যবিধি তৈরি করেছে সিএবির মেডিক্যাল টিম। এক্ষেত্রে সরকারি নির্দেশিকা মেনে চলার দিকেও নজর দেওয়া হয়েছে। স্থির হয়েছে যে, অনুশীলনে ফেরার আগে ক্রিকেটারদের স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে ক্লাস করানো হবে। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে কী কী করতে হবে এবং কী কী করা যাবে না, তা স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দেওয়া হবে ক্রিকেটারদের।

সিএবির মেডিক্যাল কমিটি যে স্বাস্থ্যবিধি তৈরি করেছে তার উল্লেখযোগ্য শর্তগুলি হল-

মাঠ, ড্রেসিংরুম, ইন্ডোর, জিম-সহ সমস্ত ইডেন চত্বর জীবাণুমুক্ত করা হবে।

ইডেন চত্বরেই তৈরি হবে বিশেষ আইসোলেশন রুম। অনুশীলন বা ম্যাচ চলাকালীন কোনও ক্রিকেটারের মধ্যে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে, এই আইসোলেশন রুমে চিকিৎসা হবে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারের।

প্র্যাকটিসে সব বোলারদের আলাদা আলাদা বল ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছে আইসিসি। সেইমতো সিএবি অনুশীলনের সময় সব বোলারদের আলাদা আলাদা বল ব্যবহার করতে দেবে। একই বলে একাধিক বোলার বল করতে পারবেন না নেটে।

ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত সামগ্রী সতীর্থদের সঙ্গে ভাগ করে নেওয়া বারণ। অনুশীলনের সময় সঙ্গে রাখতে হবে স্যানিটাইজার, যা কারও সঙ্গে ভাগ করে নেওয়া যাবে না। প্রত্যেককে সঙ্গে রাখতে হবে ব্যক্তিগত হ্যান্ড স্যানিটাইজার।

ইডেনের সাজঘর যত কম সম্ভব ব্যবহার করার নির্দেশ দেওয়া হবে ক্রিকেটারদের। সকলকে বাড়ি থেকেই খেলার পোশাক পরে মাঠে আসার নির্দেশ দেওয়া হবে। ড্রেসিংরুমে স্নান করা, সুইমিং পুল ব্যবহার, এবং সরকারি নির্দেশ না আসা পর্যন্ত জিম ব্যবহারেও থাকছে নিষেধাজ্ঞা।

প্রত্যেকদিন অনুশীলনের আগে ক্রিকেটারদের থার্মাল স্ক্রিনিং করা হবে। অসামঞ্জস্য দেখলে সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারকে অনুশীলনের অনুমতি দেওয়া হবে না। মাঠ থেকে ক্রিকেটারদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা রাখা হবে।

বন্ধ করুন