বাংলা নিউজ > ময়দান > এবার থেকে ত্রিপুরার হয়ে বাংলার বিরুদ্ধে খেলতে নামবেন ‘বঙ্গভূষণ’ ঋদ্ধিমান সাহা!
ত্রিপুরা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলেন ঋদ্ধিমান সাহা (ছবি:পিটিআই) (PTI)

এবার থেকে ত্রিপুরার হয়ে বাংলার বিরুদ্ধে খেলতে নামবেন ‘বঙ্গভূষণ’ ঋদ্ধিমান সাহা!

  • এ বছরই বাংলা ছেড়ে ত্রিপুরায় নাম লিখিয়েছেন ঋদ্ধিমান সাহা। তিনি জানিয়েছেন, এবার থেকে ত্রিপুরার হয়েই খেলবেন। সিএবি কর্তাদের একাংশের সঙ্গে সমস্যা হওয়ার কারণে দূরত্ব তৈরি হয়েছিল। এরপরেই বাংলা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ঋদ্ধিমান সাহা। এমন অবস্থায় বঙ্গভূষণ সম্মান পাওয়ার জন্য চিঠি পেয়ে খুশি ঋদ্ধিমান সাহা।

বাইশ গজের বাইরে বাংলা ক্রিকেট সংস্থার সঙ্গে তার যাই হয়ে থাকুক না কেন, বাংলা ক্রিকেট সংস্থার কর্তাদের সঙ্গে তার যত সমস্যাই হোক না কেন, সে তো বাংলারই গর্বিত সন্তান। আর সে কারণেই বহু বিতর্কের মধ্যেও ঋদ্ধিমান সাহাকে বঙ্গভূষণ সম্মান দিচ্ছে রাজ্য সরকার। ২৫ জুলাই নজরুল মঞ্চে তাঁর হাতে এই সম্মান তুলে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন… WI vs IND: শেষ ওভারে সঞ্জুর কিপিংয়ে মানরক্ষা ভারতের, রইল ভিডিয়ো 

যেই বছরে ঋদ্ধিমান সাহা বাংলা ছেড়ে ভিন রাজ্যের হয়ে ক্রিকেট খেলতে যাচ্ছেন সেই বছরেই এমন সম্মান! অনেকে অবাক হলেও, এই সম্মান পেয়ে গর্বিত ঋদ্ধিমান সাহা। দীর্ঘ দিন ধরে বাংলার হয়ে খেলেছেন ঋদ্ধিমান। দেশের হয়ে ৪০টি টেস্ট খেলেছেন বাংলার এই ক্রিকেটার। এই বছরই ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়েছেন বাংলার উইকেটরক্ষক। জাতীয় দলে আর ফেরানো হবে না বলে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে। 

আরও পড়ুন… WI vs IND: শেষ ওভারে সঞ্জুর কিপিংয়ে মানরক্ষা ভারতের, রইল ভিডিয়ো

বঙ্গভূষণ সম্মান পাওয়ার চিঠি পেয়ে ঋদ্ধিমান সাহা বলেন, ‘আমি গর্বিত। দীর্ঘ দিন বাংলার হয়ে খেলেছি। আমাকে যোগ্য মনে করেছে বলেই এই সম্মান দেওয়া হয়েছে। নবান্ন থেকে আগেই ফোন করেছিল। শুক্রবার চিঠি পেলাম।’ ৩৮ বছরের ঋদ্ধি ভারতের হয়ে ৪০টি টেস্ট ছাড়াও ন’টি একদিনের ম্যাচ খেলেছেন। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তিনি ১২২টি ম্যাচ খেলেছেন। ভারতের হয়ে তিনটি শতরান রয়েছে ঋদ্ধিমান সাহার।

আরও পড়ুন… WI vs IND: শেষ ওভারে সঞ্জুর কিপিংয়ে মানরক্ষা ভারতের, রইল ভিডিয়ো

এ বছরই বাংলা ছেড়ে ত্রিপুরায় নাম লিখিয়েছেন ঋদ্ধিমান সাহা। তিনি জানিয়েছেন, এবার থেকে ত্রিপুরার হয়েই খেলবেন। সিএবি কর্তাদের একাংশের সঙ্গে বিতর্ক ও সমস্যা হওয়ার কারণে দূরত্ব তৈরি হয়েছিল। এরপরেই বাংলা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ঋদ্ধিমান সাহা। এমন অবস্থায় বঙ্গভূষণ সম্মান পাওয়ার জন্য চিঠি পেয়ে খুশি ঋদ্ধিমান সাহা। 

বন্ধ করুন