বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘এটা তোমার বাড়ির উঠোন নয়’, ভাইরাল কোহলি-অ্যান্ডারসনের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়
অ্যান্ডারসন-বিরাট ঝামেলা।
অ্যান্ডারসন-বিরাট ঝামেলা।

‘এটা তোমার বাড়ির উঠোন নয়’, ভাইরাল কোহলি-অ্যান্ডারসনের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়

  • দুই তারকাক ঝামেলার সঠিক কারণ জানা না গেলেও অনেকে মনে করছেন, ম্যাচের তৃতীয় দিন বুমরাহর সঙ্গে অ্যান্ডারসনের ঝামেলার উল্লেখ করেছিলেন কোহলি। আসলে তৃতীয় দিনের শেষে বুমরাহ এবং অ্যান্ডারসনের মধ্যেও ঝামেলা হয়েছিল।

মহম্মদ সিরাজ, জসপ্রীত বুমরাহের পর এ বার বিরাট কোহলির সঙ্গে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ে জড়ালেন ইংল্যান্ডের তারকা বোলার জেমস অ্যান্ডারসন। ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসের ১৭তম ওভারে তখন বল করছিলেন অ্যান্ডারসন। বিরাট কোহলি ১০ রানে ব্যাট করছিলেন। দু'জনের মধ্যে ঠিক কী নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়েছে, জানা যায়নি। তবে বিরাটের একটি মন্তব্য স্টাম্প মাইকে ধরা পড়েছে। যেখানে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘এটি তোমার বাড়ির পিছনের উঠোন নয়।’ অ্যান্ডারসনও ঘুরে দাঁড়িয়ে পাল্টা কোহলিকে কিছু মন্তব্য করেন, কিন্তু সেটা স্ট্যাম্প মাইকে ধরা পড়েনি।

ঝামেলার সঠিক কারণ জানা না গেলেও অনেকে মনে করছেন, ম্যাচের তৃতীয় দিন বুমরাহর সঙ্গে অ্যান্ডারসনের ঝামেলার উল্লেখ করেছিলেন কোহলি। আসলে তৃতীয় দিনের শেষে বুমরাহ এবং অ্যান্ডারসনের মধ্যেও ঝামেলা হয়েছিল।

ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে তাদের অল আউট করার লক্ষ্যে ৩৯ বছরের ব্রিটিশ তারকাকে একের পর বাউন্সার করতে থাকেন বুমরাহ। যার ফল, একই ওভারে চারটি নো বল করেন ভারতীয় তারকা বোলার। পাশাপাশি বুমরাহর একাধিক বল অ্যান্ডারসনের গায়ে এবং হেলমেটে লাগে। প্রথম বল জিমির হেলমেটে লাগার পরেও থামেননি বুমরাহ। তার পরেও কয়েকটি শর্ট বল অ্যান্ডারসনের শরীরে লাগে। দিনের শেষে দুই দল সাজঘরে ফিরে যাওয়ার সময় বুমরাহকে উত্তেজিত ভাবে কিছু বলতে দেখা গিয়েছিল অ্যান্ডারসনকে। বিরাটের সঙ্গে ঝামেলার কারণ সেই ঘটনারই রেশ বলে অনেকে মনে করছেন।

বুমরাহর সঙ্গে ঝামেলা অ্যান্ডারসনের।
বুমরাহর সঙ্গে ঝামেলা অ্যান্ডারসনের।

পাঁচ টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে নাটিংহ্যামে জেমস অ্যান্ডারসনের প্রথম বলেই বিরাট কোহলি আউট হয়ে গিয়েছিলেন। গোল্ডেন ডাক করার পরেও বিরাটের ফর্মের উন্নতি হয়নি দ্বিতীয় ম্যাচেও। প্রথম ইনিংসে ৪২ রান করার পর, দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ২০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। ভারত অধিনায়কের পারফরম্যান্স নিয়ে এখন সমালোচনার ঝড় বয়ে চলেছে। আর সে কারণে বিরাটও কারণে অকারণে সম্ভবত মেজাজ হারাচ্ছেন।

বন্ধ করুন