বাংলা নিউজ > ময়দান > Thomas Cup 2022 Final: খেলাধুলোয় 'এটা ভারতের সেরা জয়', থমাস কাপে ইতিহাস রচনা করা শ্রীকান্তদের ফোন মোদীর

Thomas Cup 2022 Final: খেলাধুলোয় 'এটা ভারতের সেরা জয়', থমাস কাপে ইতিহাস রচনা করা শ্রীকান্তদের ফোন মোদীর

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কথা বলছেন কিদাম্বি শ্রীকান্ত, লক্ষ্য সেনরা। (ছবি সৌজন্যে ভিডিয়ো টুইটার)

ঐতিহাসিক জয়ের পর প্রধানমন্ত্রীর ফোন পেয়ে স্বভাবতই আপ্লুত হয়েছেন ভারতীয় শাটলাররা। ফোনে তাঁরা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। এখন দেশে খেলার পরিবেশ দারুণ বলেও জানান চিরাগ শেট্টি, সাত্যিকসাইরাজ রানকিরেড্ডিরা। প্রধানমন্ত্রীর আর্জি মেনে দেশের যুবপ্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ করেন।

ঐতিহাসিক জয়ের পর শুভেচ্ছা এসেছিল। কিছুক্ষণ পর সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ফোন পেলেন থমাস কাপে ইতিহাস রচনা করা ভারতীয় দলের তারকারা। জয়ের জন্য খেলোয়াড়দের পাশাপাশি কোচ এবং তাঁদের পরিবারকেও অভিনন্দন জানালেন। সঙ্গে নিজের বাসভবনে আমন্ত্রণ জানিয়ে রাখেন মোদী। বললেন, ‘যে কোনও খেলায় এটা ভারতের সেরা জয়।’

আরও পড়ুন: Thomas Cup Final 2022: প্রথমবার ‘জন গণ মন’-র সাক্ষী থমাস কাপ, ছলছলে চোখ তেরঙাকে স্যালুট শ্রীকান্তদের

রবিবার ইন্দোনেশিয়াকে উড়িয়ে ইতিহাসে প্রথমবার থমাস কাপ জিতেছে ভারত। পদক পাওয়ার পর কিদাম্বি শ্রীকান্তদের কাছে ফোন আসে মোদীর। হালকা মেজাজে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। ফোনের ওপার থেকে মোদী বলেন, ‘এটা ভারতের সেরা জয়।’

থমাস কাপের ফাইনালের আগে খেলোয়াড়রা কী ভাবছিলেন, তাঁদের মানসিকতা কেমন ছিল, তাও জানতে চান। মোদী জানান, সেই ঐতিহাসিক জয়ে কোচেদেরও হাত আছে। শ্রীকান্ত, লক্ষ্য সেনদের মতো তারকাদের থেকে ছেলেবেলা থেকেই খেলার সুযোগ দেওয়ার জন্য তাঁদের পরিবারকেও ধন্যবাদ জানান মোদী। সেইসঙ্গে দেশে ফিরলে নিজের বাসভবনে শ্রীকান্তদের আমন্ত্রণ জানিয়ে রাখেন।

ঐতিহাসিক জয়ের পর প্রধানমন্ত্রীর ফোন পেয়ে স্বভাবতই আপ্লুত হয়েছেন ভারতীয় শাটলাররা। ফোনে তাঁরা প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। এখন দেশে খেলার পরিবেশ দারুণ বলেও জানান চিরাগ শেট্টি, সাত্যিকসাইরাজ রানকিরেড্ডিরা। প্রধানমন্ত্রীর আর্জি মেনে দেশের যুবপ্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ করেন।

Thomas Cup 2022 Final India vs Indonesia

পাঁচটি ম্যাচ ছিল। ঐতিহাসিক সোনা জয়ের জন্য তিনটি ম্যাচই যথেষ্ট ছিল ভারতের কাছে। ১৪ বারের ইন্দোনেশিয়াকে উড়িয়ে দিয়ে ইতিহাসে প্রথমবার থমাস কাপ জিতল ভারত। শুরুটা করেছিলেন লক্ষ্য সেন। এবারের টুর্নামেন্টে তেমন ছন্দে না থাকলেও ঐতিহাসিক মুহূর্তে নিজের সেরাটা উজাড় করে দেন। দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনে ভারতকে ফাইনালে এগিয়ে দেন। তারপর অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তন করেন সাত্যিকসাইরাজ রানকিরেড্ডি ও চিরাগ শেটি। দ্বিতীয় গেমে ম্যাচ পয়েন্টে পিছিয়ে ছিলেন তাঁরা। সেখান থেকে ভারতকে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে দেন। বাকি কাজটা সেরে নেন অভিজ্ঞ কিদাম্বি শ্রীকান্ত। স্ট্রেট গেমে জিতে ভারতকে ঐতিহাসিক সোনা জেতান।

বন্ধ করুন