বাংলা নিউজ > ময়দান > বায়ো বাবলে থাকা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং: সুনীল ছেত্রি
বায়ো বাবলে থাকার জেরে প্রবল মানসিক চাপের মুখে পড়তে হয়, স্বীকার করলেন সুনীল ছেত্রি।
বায়ো বাবলে থাকার জেরে প্রবল মানসিক চাপের মুখে পড়তে হয়, স্বীকার করলেন সুনীল ছেত্রি।

বায়ো বাবলে থাকা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং: সুনীল ছেত্রি

  • জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থেকে দিনের পর দিন খেলা চালিয়ে যাওয়া এবং তার জেরে প্রবল মানসিক চাপের মুখে পড়তে হয় বলে জানিয়েছেন সুনীল ছেত্রি।

শুভব্রত মুখার্জি

জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থেকে দিনের পর দিন খেলা চালিয়ে যাওয়া যে কার্যত অসম্ভব এবং তার জেরে প্রবল মানসিক চাপের মুখে পড়তে হয়, তা অকপটে স্বীকার করলেন জাতীয় ফুটবল দল তথা বেঙ্গালুরুর অধিনায়ক সুনীল ছেত্রি।

করোনার কারণে আপাতত দর্শকশূন্য পরিস্থিতিতে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয়েছে খেলাধুলো। করোনার প্রকোপ এখন ও পুরোপুরি কাটেনি। তাই কোভিড প্রোটোকল মেনে কঠোর নিয়মানুবর্তিতার মধ্যে দিয়ে খেলতে হচ্ছে যে কোনও টুর্নামেন্ট। আইএসএলও তার ব্যতিক্রম নয়।

ইতিমধ্যেই গোয়া পৌছে গিয়েছে সব দল। কোভিড প্রোটোকল মেনে হোটেলে থেকেই চলেছে কঠোর অনুশীলন। ২০ তারিখে মহারণ শুরুর আগে সকলেই ঝালিয়ে নিতে ব্যস্ত তাঁদের টিম কম্বিনেশন।

আইএসএল খেলার জন্য গোয়ার হোটেলে জৈব নিরাপত্তা বলয়ে রয়েছেন সুনীল। জৈব বলয়ের সেই অভিজ্ঞতা কেমন? তা ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করে নিলেন বেঙ্গালুরু এফসি তারকা। গোয়ায় হোটেল রুমে বসেই জানালেন বায়ো-বাবলে থাকা সহজ ব্যাপার নয়। প্রিয় লেখকের বই ও ওয়েব সিরিজ দেখে হোটেলরুমে সময় কাটছে সস্ত্রীক সুনীলের।

সুনীল বলেন, ‘বন্ধুরা আশা করি তোমরা ভালো আছ। এই নিয়ে তৃতীয় সপ্তাহ আমরা বায়ো-বাবলে রয়েছি। এটা খুব একটা সহজ ব্যাপার নয়, কিন্তু অবশ্যই জরুরি। আমরা দিনে দু’বার অনুশীলন করে নিজেদের প্রস্তুত করছি। আর মাত্র দশ দিনের অপেক্ষা। আমি নিশ্চিত আমাদের মতো তোমরাও আইএসএল শুরুর জন্য মুখিয়ে রয়েছ।’

বন্ধ করুন