করোনাভাইরাস হানার আশঙ্কায় বাতিল হতে পারে টোকিও অলিম্পিক।
করোনাভাইরাস হানার আশঙ্কায় বাতিল হতে পারে টোকিও অলিম্পিক।

বাতিল হতে পারে টোকিও অলিম্পিক, করোনা হানায় জোরালো হচ্ছে আশঙ্কা

  • করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কায় বাতিল হতে পারে টোকিও অলিম্পিক। সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির এক কর্তা।

পিছানো নয়, করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কায় শেষ পর্যন্ত বাতিল হতে পারে টোকিও অলিম্পিক। এমনই চাঞ্চল্যকর সম্ভাবনার কথা জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির (আইওসি) এক কর্তা।

অলিম্পিকের ভাগ্য নির্ধারণের জন্য এখনও দুই মাসের কাছাকাছি সময় রয়েছে বলে জানিয়েছেন আইওসি-এর বর্ষীয়ান কানাডিয়ান কর্তা ডিক পাউন্ড। অর্থাত্ এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে আগামী মে মাসের শেষে।

তিনি জানিয়েছেন, অলিম্পিকের প্রস্তুতি বহু দিন আগে শুরু হয়ে যায়। এখনও বেশ কিছু ব্যবস্থা করা বাকি রয়েছে যেমন, নিরাপত্তা, খাদ্যস অলিম্পিক ভিলেজ এবং হোটেলের শেষ মুহূর্তের খুঁটিনাটি আয়োজন সম্পূর্ণ করা এবং সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদেোর থাকা-খাওয়া ও কাজের জায়গা প্রস্তুত করা। অর্থাত্, আইওসি যদি শেষ পর্যন্ত টোকিওতে গেমস আয়োজন না করার সিদ্ধান্ত নেয়, সে ক্ষেত্রে গোটা অলিম্পিক বাতিল করা ছাড়া কোনও উপায় থাকবে না।

দুই মাস আগে চিনের উহানে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার পরে এখনও পর্যন্ত তারে জেরে গোটা বিশ্বে অসুস্থ হয়েছেন ৮০ হাজারের বেশি মানুষ। নিহতের সংখ্যা পেরিয়ে গিয়েছে ২,৭০০।

সম্প্রতি চিন ছাড়িয়ে দক্ষিণ কোরিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, এমনকি ইউরোপেও হানা দিয়েছে এই মারণভাইরাস। খোদ অলিম্পিক আয়োজক দেশ জাপানে এই সংক্রমণে এ পর্যন্ত মারা গিয়েছেন চার জন।তবে এখনই সব আশা ছাড়তে বারণ করছেন পাউন্ড। অ্যাথলিটদের তিনি অনুশীলন চালিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। আগামী ২৪ জুলাই থেকে শুরু হতে চলা টোকিও অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করার কথা প্রায় ১১ হাজার অ্যাথলিটের। এ ছাড়া ২৫ অগস্ট প্যারালিম্পিকে যোগ দিতে চলেছেন প্রায় ৪,৪০০ জন অ্যাথলিট।

বন্ধ করুন