বাংলা নিউজ > ময়দান > Tokyo Olympics: শেষবেলায় বাধা চোট,টোকিওর টিকিট না পেয়ে আবেগঘন বার্তা হিমার
হিমা দাস। ছবি- টুইটার (@HimaDas8)।
হিমা দাস। ছবি- টুইটার (@HimaDas8)।

Tokyo Olympics: শেষবেলায় বাধা চোট,টোকিওর টিকিট না পেয়ে আবেগঘন বার্তা হিমার

  • চোটের কারণে টোকিও গেমসে কোয়ালিফাই করতে যে প্রতিযোগিতায় নামার কথা ছিল সেখানে অংশগ্রহণ করতে পারেননি হিমা।

শুভব্রত মুখার্জি

১৯৮৪ সালের লস অ্যাঞ্জেলেস অলিম্পিক্সের ট্রাক অ্যান্ড ফিল্ড থেকে 'জন্ম' নিয়েছিলেন ভারতের কিংবদন্তি অ্যাথলিট পিটি ঊষা। তাঁর হাত ধরে যে নবজাগরণের সূচনা হয়েছিল ভারতীয় অ্যাথলেটিক্সের জগতে, তা পূর্নতা অসমের ছোট্ট গ্রাম থেকে উঠে আসা অ্যাথলিট হিমা দাসের হাত ধরে। ভারতের মত দেশে যেখানে ক্রিকেট ছাড়া বাকি সমস্ত খেলা কয়েকবছর আগেও 'দুয়োরানির' সম্মান পেত সেই জায়গায় দাড়িয়ে অ্যাথলেটিক্সে ও ভারত যে অলিম্পিক গেমস থেকে পদক জয়ের আশা করতে পারেন তা নিজের পারফরম্যান্সের মধ্যে দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছিলেন হিমা দাস। তবে ভারতীয় সমর্থকদের মন ভেঙে দিয়ে একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে চোটের কারণে টোকিও গেমসে কোয়ালিফাই করতে যে প্রতিযোগিতায় নামার কথা ছিল সেখানে অংশ পর্যন্ত নিতে পারেননি তিনি।

পাতিয়ালাতে চতুর্থ জাতীয় অ্যাথলেটিক্সের আসরে একেবারে শেষ মুহূর্তে নিজের দুই অলিম্পিক্স ইভেন্টের যোগ্যতা অর্জনের লক্ষ্যে নামতেই পারেননি হিমা। প্রসঙ্গত, ১০০ ও ২০০ মিটার দৌড়ে যোগ্যতা অর্জন করতে পারলে তাই হত হিমার ইভেন্ট। তবে তা শুরুর আগেই চোটের কারনে শেষ পর্যন্ত নাম প্রত্যাহার করতে হয়েছিল হিমাকে। হিমার ট্যান্ডনে চোট থাকার কারণে তাঁর পক্ষে আর দৌড়ানো সম্ভব হয়নি।

আর তার পরেই হিমা তার সমর্থকদের জন্য দিলেন এক আবেগঘন বার্তা। লিখলেন, ‘অসময়ের চোটের কারণে আমি আমার জীবনের প্রথম অলিম্পিক্সে অংশ নিতে পারলাম না। আমি আমার নতুন ইভেন্ট ১০০ ও ২০০ মিটারের অলিম্পিক যোগ্যতামান অর্জনের অত্যন্ত কাছে ছিলাম। আমার সমস্ত কোচ, সাপোর্ট স্টাফ,আমার টিম মেম্বারদের অনবরত সাপোর্টের জন্য কৃতজ্ঞ। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি আমি অত্যন্ত ভাল একটা কামব্যাক করব। ২০২২ সালের এশিয়ান গেমস,কমনওয়েলথ গেমস এবং বিশ্ব চ্যাম্পিয়ানশিপে নামার জন্য আমি মুখিয়ে আছি।’

বন্ধ করুন