বাংলা নিউজ > ময়দান > এবার থেকে অলিম্পিক্সে শুকনো রক্ত দিয়ে হবে অ্যাথলিটদের মাদক পরীক্ষা!
টোকিও অলিম্পিক্সের আগে কতটা তৈরি জাপান (ছবি: গুগল) 
টোকিও অলিম্পিক্সের আগে কতটা তৈরি জাপান (ছবি: গুগল) 

এবার থেকে অলিম্পিক্সে শুকনো রক্ত দিয়ে হবে অ্যাথলিটদের মাদক পরীক্ষা!

  • টোকিও অলিম্পিক্স থেকে অ্যান্টি ডোপিং পদ্ধতিতে আসতে চলেছে যুগান্তকারী পরিবর্তন। এবারের অলিম্পিক্স থেকে এক নতুন পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে চলেছে বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা।

টোকিও অলিম্পিক্স থেকে অ্যান্টি ডোপিং পদ্ধতিতে আসতে চলেছে যুগান্তকারী পরিবর্তন। এবারের অলিম্পিক্স থেকে এক নতুন পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে চলেছে বিশ্ব ডোপ বিরোধী সংস্থা। শুক্রবার তাদের তরফে জানানো হয়েছে, অ্যাথলিটদের শুকনো রক্ত দিয়ে এই ট্রায়াল পরীক্ষাটি করা হবে। এই পরীক্ষায় উঠে আসবে, কোনও অ্যাথলিট মাদক নিয়ে প্রতারণা করছেন কিনা। ডোপিং টেস্টে বাড়তি নজর দেওয়ার জন্য অভিনব পন্থা চালু করতে চলেছে ওয়াডা। সংস্থার দাবী, এই নতুন পদ্ধতি বিশেষ কার্যকরী হবে। 

ওয়াডার অ্যান্টি ডোপিং নজরদারি বোর্ড ও এক্সিকিউটিভ কমিটি এক ভার্চুয়াল বৈঠকে এই নতুন পদ্ধতির কথা জানিয়েছেন। ওয়াডার প্রেসিডেন্ট উইটোল্ড বাঙ্কা বলেছেন, ‘বর্তমান যে অ্যান্টি ডোপিং পদ্ধতিটি রয়েছে তাকে আরও সমৃদ্ধ করবে শুকনো রক্ত স্পট টেস্টিং-এর নতুন পদ্ধতি।’ 

এই পরীক্ষায় আঙুলের একটি অংশ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এবং একটি শোষণকারী কার্ডের উপরে আটকে দেওয়া হবে। ওয়াডার প্রেসিডেন্ট বাঙ্কা জানিয়েছেন, এই পরীক্ষাটি অ্যান্টি ডোপিংয়ের ক্ষেত্রে একটি নতুন যুগ হিসেবে চিহ্নিত হতে পারে, ভবিষ্যতেও অনেক অ্যাথলিটদের ওপর এই পরীক্ষা চালানো যেতে পারে।

বাঙ্কা আরও বলেছেন, ‘আমার মনে হয় এই পরীক্ষাটি অ্যাথলিট ও অ্যান্টি ডোপিং সংস্থা উভয়ের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে এবং ইতিবাচক প্রভাব ফেলার সম্ভাবনা রয়েছে। আমি সত্যিই বিশ্বাস করি যে, এটি অ্যান্টি ডোপিংয়ের ক্ষেত্রে সত্যিকারের গেম-চেঞ্জার হতে পারে।’ ওয়াডার তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, আসন্ন টোকিও অলিম্পিক্সে নতুন পদ্ধতিটি চালু করা হবে। পরীক্ষকরা আশা করছেন, আগামী ফেব্রুয়ারিতে বেজিংয়ের শীতকালীন অলিম্পিক এবং প্যারালিম্পিক গেমসের মধ্যেও এটি ব্যবহার করা হবে।  

ওয়াডার প্রধান বিজ্ঞানী অলিভিয়ের রবিন জানিয়েছেন, শুকনো রক্ত স্পট নমুনা সংগ্রহ করা বেশ সাশ্রয়ের। তিনি বলেছেন, ‘আমরা বর্তমানে যে রক্তের নমুনা সংগ্রহ করি, তা শিশিতে নিয়ে যাই। কিন্তু এ বার এক টুকরো কাগজেই কাজ শেষ হয়ে যাবে। নমুনাগুলির সংগ্রহ করার ক্ষেত্রে এ বার সাশ্রয় হবে, কারণ যে পরিমাণ রক্ত সংরক্ষণ করা দরকার তা আগের থেকে অনেকটাই কম।’

বন্ধ করুন