বাংলা নিউজ > ময়দান > Tokyo Olympics: টোকিয়ো অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন মনিকা-শরৎ
মনিকা-শরৎ।
মনিকা-শরৎ।

Tokyo Olympics: টোকিয়ো অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়ে গেলেন মনিকা-শরৎ

পিছিয়ে থেকেও দুরন্ত প্রত্যাবর্তন। দোহায় অনুষ্ঠিত এশিয়ান অলিম্পিক্স কোয়ালিফিকেশন টুর্নামেন্টের মিক্সড ডাবলস ফাইনালে কোরিয়ান জুটি লি সাংসু-জিওন জিহিকে হারিয়ে অলিম্পিক্সের টিকিট নিশ্চিত করল মনিকা বাত্রা-শরৎ কমল জুটি।

ব্যক্তিগত বিভাগে তাঁরা আগেই অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়ে গিয়েছেন। এ বার মিক্সড ডাবলসেও অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র জোগাড় করে নিলেন মনিকা বাত্রা-শরৎ কমল। দোহায় অনুষ্ঠিত এশিয়ান অলিম্পিক্স কোয়ালিফিকেশন টুর্নামেন্টে এই জুটি অসাধরাণ লড়াই করে ৪-২-এ হারিয়ে দেয় কোরিয়ার লি সাংসু-জিওন জিহি জুটিকে।

পিছিয়ে থেকেও অসাধারণ প্রত্যাবর্তন। বিশ্বের পাঁচ নম্বর জুটির বিরুদ্ধে দুরন্ত লড়াই করে শেষ পর্যন্ত জয় ছিনিয়ে নিলেন মনিকা-শরৎ। প্রথম দু'টি  গেম ৮-১১, ৬-১১-তে হেরে বসেছিল ভারতীয় জুটি। কিন্তু এর পরেই ঘুরে দাঁড়ান তারা। তৃতীয় গেমে ছন্দে ফিরে নিজেদের সার্ভ-এ মাত্র এক পয়েন্ট নষ্ট করেছিলেন ভারতের দুই তারকা প্যাডেলার। পরের চারটি গেম ১১-৫, ১১-৬, ১৩-১১ এবং ১১-৮-এ জিতে টোকিয়ো অলিম্পিক্সের যোগ্যতা অর্জন করে ২০১৮ সালের এশিয়ান গেমসে ব্রোঞ্জজয়ী ভারতীয় জুটি।

বিশ্বের পাঁচ নম্বর জুটির বিরুদ্ধে জয় পাওয়াটা মোটেই সহজ ছিল না। কিন্তু কখনওই নিজেদের আত্মবিশ্বাস হারাননি মনিকা-শরৎ। মনিকা বলেছেন, ‘সত্যি সত্যি আমি খুব খুশি। জিওন জিহি এবং লি সাংসুর মতো প্লেয়ারের বিরুদ্ধে লড়াই করেছি। আমি ওদের সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। খুব সহজে অ্যাটাক করতে পেরেছি। নিজের একটা তৃপ্তি হচ্ছে। এ ভাবেই আরও খাটতে চাই। সাফল্য পেতে চাই।’

পুরুষদের সিঙ্গলসে ইতিমধ্যেই শরৎ কমল এবং জি সাথিয়ান যোগ্যতা অর্জন করেছেন।  মেয়েদের সিঙ্গলসে মনিকা এবং সুতীর্থা মুখোপাধ্যায়ও অলিম্পিক্সের ছাড়পত্র পেয়েছেন। স্বভাবতই এ বার টিটি থেকে পদক পাওয়ার বিষয়ে আশাবাদী ভারতীয় টেবলটেনিস মহল।

বন্ধ করুন