বাংলা নিউজ > ময়দান > EPL 2020-21: প্রিমিয়র লিগে রেকর্ড গড়ে প্রথম ম্যাচেই জয় পেলেন স্পার্স কোচ মেসন
রায়েন মেসন ও গ্যারেথ বেল। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)
রায়েন মেসন ও গ্যারেথ বেল। ছবি- রয়টার্স। (REUTERS)

EPL 2020-21: প্রিমিয়র লিগে রেকর্ড গড়ে প্রথম ম্যাচেই জয় পেলেন স্পার্স কোচ মেসন

  • দ্বিতীয়ার্ধ পিছিয়ে থেকে শুরু করে এ মরশুমে একটিই মাত্র ম্যাচ জিততে পেরেছিলেন মৌ। প্রথম ম্যাচেই মরিনহোকে ছুঁয়ে ফেলেন রায়েন মেসন।

সপ্তাহের শুরুতেই কোচের দায়িত্ব থেকে জোসে মরিনহোকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত নেয় টেটনহ্যাম হটস্পার। সকলকে বেশ কিছুটা চমকে দিয়েই মরশুমের শেষ অবধি অস্থায়ী কোচের দায়িত্বভার দেওয়া হয় রায়ন মেসনের কাঁধে। প্রথম ম্যাচেই সাউদাম্পটনকে হারিয়ে সেই বিশ্বাসের মান রাখলেন মেসন। 

একসময় টটেনহ্যাম অ্যাকাডেমিতে মেসনের সতীর্থ এবং ইংল্যান্ড জাতীয় দলের অধিনায়ক হ্যারি কেনকে ছাড়াই মাঠে নামতে হয় স্পার্সকে। মাঠে নামার সাথে সাথেই প্রিমিয়র লিগের ইতিহাসে কনিষ্ঠতম ম্যানেজারের খেতাবটি চলে যায় মেসনের মাথায়। শুরুটা একটু মন্থরভাবেই করেন তাঁরা।। ম্যাচের দু'মিনিটে দু'টি অবিশ্বাস্য সেভ করেন স্পার্স অধিনায়ক হুগো লরিস। তবে ৩০ মিনিটের মাথায় সেন্টস স্ট্রাইকার ড্যানি ইংসের গোলে পিছিয়ে পড়ে উত্তর লন্ডনের দলটি। প্রথমার্ধ পিছিয়ে থেকেই শেষ করতে হয় তাঁদের।

দ্বিতীয়ার্ধে ছবিটা পাল্টায়। দলে ফিরে ৬০ মিনিটে গোল করে স্পার্সকে সমতায় ফেরান গ্যারেথ বেল। এরপরেই জয়ের আশায় সেন্টসের গোল লক্ষ্য করে মুর্হমুহ আক্রমণ হানাতে থাকে মেসনের দল। সন হিউং মিং গোল করলেও অফসাইডের জন্য তা বাতিল করা হয়। কিন্তু কেনের অভাবে স্পার্সের ত্রাতা হয়ে ওঠেন সনই। নির্ধারিত সময়ের শেষ লগ্নে পেনাল্টি থেকে গোলে বল জড়িয়ে তাঁর মরশুমের ১৫তম গোলটি করেন সন।

ফলে প্রথম ম্যাচেই পিছিয়ে পড়েও ম্যাচ জয়ের মধ্যে দিয়ে কোচ হিসাবে তাঁর দক্ষতার প্রমাণ দেন মেসন। দ্বিতীয়ার্ধ পিছিয়ে থেকে শুরু করে এ মরশুমে একটিই মাত্র ম্যাচ জিততে পেরেছিলেন মৌ, এক ম্যাচ পরেই মরিনহোকে ছুঁয়ে ফেলেন তিনি। জয়ের ফলে প্রথম চারের লড়াইয়ে মাত্র দুই পয়েন্টে পিছিয়ে রইল স্পার্স। যদিও তাঁরা একটি ম্যাচ বেশি খেলেছেন। তবে মেসনের জন্য ট্রফি জয়ের হাতছানি রয়েছে পরের ম্যাচেই। লিগ কাপ ফাইনালে তাঁরা মুখোমুখি হবে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির।

বন্ধ করুন