বাংলা নিউজ > ময়দান > কমনওয়েলথ শেষে দেশেই ফিরলেন না, নিখোঁজ পাকিস্তানের দুই বক্সার
নিখোঁজ পাকিস্তানের দুই বক্সার।

কমনওয়েলথ শেষে দেশেই ফিরলেন না, নিখোঁজ পাকিস্তানের দুই বক্সার

পাকিস্তানের জাতীয় বক্সিং সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, নিখোঁজ দুই বক্সারের নাম সুলেমান বালোচ এবং নাজিরউল্লাহ। সোমবার থেকেই খোঁজ পাওয়া যায়নি দুই বক্সারের। সূত্রের খবর, পাকিস্তান দল দেশের উদ্দেশে রওনা হওয়ার ঘণ্টা দুয়েক আগে থেকে নিখোঁজ সুলেমান ও নাজিরউল্লাহ।

অদ্ভূত ভাবে কমনওয়েলথ গেমসের পর উধাও হয়ে গেল পাকিস্তানের দুই বক্সার। সোমবার শেষ হয়ে গিয়েছে কমনওয়েলথ গেমস। তার পরে কমনওয়েলথে অংশ নেওয়া পাকিস্তানের সব ক্রীড়াবিদ দেশে ফিরে গিয়েছেন কিন্তু খোঁজ নেই দুই বক্সারের। বুধবার এ কথা জানিয়েছে পাকিস্তানের জাতীয় বক্সিং সংস্থা।

পাকিস্তানের জাতীয় বক্সিং সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, নিখোঁজ দুই বক্সারের নাম সুলেমান বালোচ এবং নাজিরউল্লাহ। সোমবার থেকেই খোঁজ পাওয়া যায়নি দুই বক্সারের। সূত্রের খবর, পাকিস্তান দল দেশের উদ্দেশে রওনা হওয়ার ঘণ্টা দুয়েক আগে থেকে নিখোঁজ সুলেমান ও নাজিরউল্লাহ।

আরও পড়ুন: শেষ দিনেও এল ৬টি পদক, মোট ২২টি সোনা সহ ৬১টি মেডেল পেল ভারত

পাকিস্তান বক্সিং সংস্থার সচিব নাসির টাং-এর বক্তব্য, দুই বক্সারের পাসপোর্ট এবং যাবতীয় নথি রয়েছে ফেডারেশনের যে কর্তারা বার্মিংহ্যাম গিয়েছিলেন তাঁদের কাছেই। এর ফলে বিদেশে বিপদে পড়তে পারেন পাক বক্সাররা। যে কারণে দলের তরফে ইংল্যান্ডে যে পাকিস্তানের দূতাবাস রয়েছে, সেখানো পুরো বিষয়টি জানানো হয়েছে। এ ছাড়াও ইংল্যান্ড পুলিশের কাছেও এই বিষয়ে সাহায্য চাওয়া হয়েছে। অন্য দিকে পাকিস্তানের অলিম্পিক্স সংস্থা চার সদস্যের তদন্ত কমিটিও গঠন করেছে।

এ বার কমনওয়েলথ গেমসে দু’টি সোনা-সহ মোট আটটি পদক পেয়েছে পাকিস্তান। যদিও বক্সিং থেকে কোনও পদক আসেনি। দু’টি সোনার মধ্যে একটি এসেছে ভারোত্তোলন এবং অন্যটি জ্যাভলিন থেকে।

আরও পড়ুন: তৃতীয় বারেও সোনা জয়ের স্বপ্নভঙ্গ, ৭ গোল হজম করে হকিতে রুপো মনপ্রীতদের

প্রসঙ্গত, এর আগে কমনওয়েলথ গেমস চলাকালীন নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার অন্তত দশ জন অ্যাথলিট। নিখোঁজদের মধ্যে ছিলেন জুডোকা চামিলা দিলানি, তাঁর ম্যানেজার আসিলা ডি’ সিলভা, কুস্তিগির সানিথ চতুরঙ্গা প্রমুখ।এর পর পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয় শ্রীলঙ্কার আধিকারিকদের তরফে। শ্রীলঙ্কা আধিকারিকরা জানান, ওই অ্যাথলিটরা আর দেশে ফিরতে চাইছেন না। ইংল্যান্ডে থেকে গিয়ে নিজেদের জীবন অন্য ভাবে কাটাতে চান।

এর পর ফের পাকিস্তানের দুই বক্সারের নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তবে দেশের বাইরে গিয়ে পাকিস্তানি অ্যাথলিটদের এ ভাবে পালিয়ে যাওয়া, নতুন কোনও ঘটনা নয়। গত জুন মাসে হাঙ্গেরিতে ফিনা ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিতে গিয়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন দেশের জাতীয় স্তরের সাঁতারু ফাইজান আকবর।