দশ উইকেটে নবাগত জাপানকে হারিয়ে অনূর্ধ্ব উনিশ বিশ্বকাপের শেষ আটে যাওয়ার পথ প্রশস্ত করল টিম ইন্ডিয়া। প্রথম ম্যাচে পড়শি শ্রীলঙ্কাকে ৯০ রানে হারিয়েছিল ভারত। এদিন অবশ্য টসে জিতে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্লুমফন্টেইনে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় ভারত।

মাত্র ২২.৫ ওভারেই শেষ জাপানের ইনিংস। যৌথ দ্বিতীয় সর্বনিম্ন স্কোরের রেকর্ড গড়ে মাত্র ৪১ রান তুলতে পেরেছিল জাপান। দুই অঙ্কের খাতায় পৌঁছাতে পারেননি কোনও জাপানি খেলোয়াড়। ভারতের জন্য চারটি উইকেট নেন লেগ স্পিনার রবি বিষ্ণোই। পেসার কার্তিক ত্যাগি ও আকাশ সিং মিলে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন। জবাবে মাত্র ২৯ বলেই খেলা শেষ করল ভারত। ২৯ ও ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন যশস্বী জয়সওয়াল ও কুমার কুশাগ্রা।

এই প্রথমবার কোনও আইসিসি ইভেন্টে খেলল জাপান। স্বভাবতই এই অসম লড়াইয়ে চার বারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ানের সামনে টিকতে পারেনি নবাগতরা। ভারতীয় ক্যাপ্টেন প্রিয়ম গর্গ বলেন যে পেসাররা আরও ভালো বল করতে পারত।

অন্যদিকে জাপান অধিনায়ক মার্কাস থারগেট বলেন যে অনেকটা অভিজ্ঞতা সমৃদ্ধ হয়ে তারা দেশে ফিরবেন। এটি কঠিন ম্যাচ হবেন তারা আগে থেকেই জানতেন, বলেন মার্কাস। কিন্তু ব্যাটিংয়ে নিজেদের সেরাটা দিতে তাঁরা ব্যর্থ হয়েছেন বলে অধিনায়কের মতামত। তবে এই ভুলগুলি থেকে শিক্ষা নিয়ে ভবিষ্যতে আরও ভালো খেলার অঙ্গীকার জাপান দলের। শুক্রবার গ্রুপ লিগের শেষ ম্যাচে নিউ জিল্যান্ডের সঙ্গে খেলবে ভারত।


বন্ধ করুন