বাংলা নিউজ > ময়দান > U19 World Cup: আফগানিস্তানকে ১৩৪ রানে অল-আউট করেও কেন জিততে পারল না শ্রীলঙ্কা? জেনে নিন আসল কারণ
শ্রীলঙ্কার যুব ক্রিকেট দল। ছবি- টুইটার (@cricketworldcup)।
শ্রীলঙ্কার যুব ক্রিকেট দল। ছবি- টুইটার (@cricketworldcup)।

U19 World Cup: আফগানিস্তানকে ১৩৪ রানে অল-আউট করেও কেন জিততে পারল না শ্রীলঙ্কা? জেনে নিন আসল কারণ

  • দুরন্ত বোলিং করেও ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় হতাশাজনক রেকর্ডে নাম জড়িয়ে যায় বিনুজার।

আফগানিস্তানকে মাত্র ১৩৪ রানে গুটিয়ে দিয়েও ম্যাচ জিততে পারল না শ্রীলঙ্কা। কোয়ার্টার ফাইনালে হেরে চলতি যুব বিশ্বকাপের খেতাবের দৌড় থেকে ছিটকে যেতে হয় সিংহলিদের। ব্যর্থ হয় বিনুজা রানপালের দুর্দান্ত বোলিং পারফর্ম্যান্স। শেষবেলায় ব্যাট হাতে ক্যাপ্টেন দুনিথ আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন দলকে জয় এনে দেওয়ায়। যদিও জয়ের দোরগোড়ায় এসে থেমে যেতে হয় দ্বীপরাষ্ট্রকে। শ্রীলঙ্কা ১৩০ রানে অল-আউট হয়ে যাওয়ায় ৪ রানের উত্তেজক জয়ে সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে আফগানিস্তানের যুব দল।

শ্রীলঙ্কার এত কম রানের লক্ষ্যমাত্রাও টপকে যেতে না পারার প্রধান কারণ হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে ব্যাটসম্যানদের নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়ার অভাবকেই। আফগান বোলাররা নিঃসন্দেহে ভালো বল করেছেন। তবে শ্রীলঙ্কার চারজন ব্যাটসম্যান রান-আউট হয়ে সাজঘরে না ফিরলে ছবিটা অন্যরকম হতেই পারত।

১০.২ ওভারে রান-আউট হন সাকুনা লিয়ানাগে। ১৬.১ ওভারে রান-আউট হয়ে ক্রিজ ছাড়েন চামিন্দু বিক্রমাসিংহে। ১৭.১ ওভারে রান-আউট হন ইয়াসিরু রডরিগো। ৪৫.৬ ওভারে রান-আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন ত্রেভিন ম্যাথিউ। স্বাভাবিকভাবেই চারটি রান-আউটের প্রভাব পড়ে ম্যাচে।

ব্যাটসম্যানদের এমন ব্যর্থতার জন্যই যুব ক্রিকেটে হতাশাজনক এক রেকর্ডের সঙ্গে জড়িয়ে যান শ্রীলঙ্কার পেসার বিনুজা রানপাল। তিনি ম্যাচে ৯.১ ওভার বল করে ৩টি মেডেন-সহ মাত্র ১০ রানের বিনিময়ে ৫টি উইকেট দখল করেন। যুব ওয়ান ডে ক্রিকেটে কোনও হেরে যাওয়া দলের হয়ে সব থেকে কম রান খরচ করে ৫ উইকেট নেওয়ার নজির এটি। এর আগে ১৯৯৮ সালে কেনিয়ার বিরুদ্ধে পাপুয়া নিউ গিনির তউয়া দাই ১৬ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন।

বন্ধ করুন