বাংলা নিউজ > ময়দান > Umran Malik Fastest Ball: ১৫৫ কিমি প্রতি ঘণ্টায় বল করে শানাকাকে ফেরালেন উমরান

Umran Malik Fastest Ball: ১৫৫ কিমি প্রতি ঘণ্টায় বল করে শানাকাকে ফেরালেন উমরান

১৫৫ কিমি প্রতি ঘণ্টায় বল করে শানাকাকে ফেরালেন উমরান মালিক (ছবি-পিটিআই)

ভারতের তরুণ পেস সেনসেশন উমরান মালিক মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়া শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলার একটি গুরুত্বপূর্ণ মোড়কে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দাসুন শানাকাকে আউট করেছিলেন। দাসুনাকে আউট করার সময়ে উমরান মালিক ১৫৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় একটি বিস্ময়কর বোলিং করেছিলেন।

ভারতের তরুণ পেস সেনসেশন উমরান মালিক মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়া শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলার একটি গুরুত্বপূর্ণ মোড়কে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দাসুন শানাকাকে আউট করেছিলেন। দাসুনাকে আউট করার সময়ে উমরান মালিক ১৫৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় একটি বিস্ময়কর বোলিং করেছিলেন। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল ২০২২) গত বছরের সংস্করণে কিছু সত্যিই ভালো ম্যাচ জয়ী পারফরম্যান্স দেওয়ার পরে, উমরান মালিক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও দুরন্ত গতির সঙ্গে বোলিং করেছেন।

আরও পড়ুন… দোষটা কার? বাবর আজমকে কি রান আউট করালেন ইমাম-উল-হক? দেখুন ভিডিয়ো

এদিনের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দাসুন শানাকা মাত্র ২৭ বলে ৪৫ রানের একটি দুরন্ত ইনিংস খেলছিলেন। তিনি যদি ক্রিজে আর কিছুক্ষণ থাকতেন তাহলে টিম ইন্ডিয়ার চাপ বাড়ত। কিন্তু ভারতের ফাস্ট বোলার উমরান মালিক ১৫৫ কিমি প্রতি ঘণ্টা গতিতে বোলিং করে অসাধারণ ডেলিভারি করেন। সেই ডেলিভারিতে ভুল করে বসেন শানাকা, কভার অঞ্চলে থাকা যুজবেন্দ্র চাহালের হাতে ক্যাচ দিয়ে বসেন তিনি। যারফলে ম্যাচের গতি পাল্টে যায়। শেষ পর্যন্ত, উমরান মালিক তাঁর চার ওভারের কোটা থেকে ২৭ রানে ২ উইকেটের দুর্দান্ত পরিসংখ্যান নিয়ে নিজের স্পেল শেষ করেছিলেন। সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ভারতের অবিশ্বাস্য ২ রানের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন উমরান মালিক।

আরও পড়ুন…. আল নাসেরে থেকেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে পারেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো!

মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ভারত বনাম শ্রীলঙ্কার মধ্যকার টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচটি ভারতের নামে ছিল। এই ম্যাচে ফাস্ট বোলার উমরান মালিক ও অভিষেক করা তারকা শিবম মাভি আধিপত্য বিস্তার করেছেন। নিজের চতুর্থ ওভারে শ্রীলঙ্কার সেট ব্যাটার দাসুন শানাকাকে আউট করেন উমরান মালিক। শুধু দলকে ব্রেকথ্রুই দেননি, বড় অর্জনও পেয়েছিলেন তিনি। এদিন উমরান মালিক ঘণ্টায় ১৫৫ কিলোমিটার গতিতে বলও করলেন। যার ফলে ভারতের এই তরুণ তারকা ইতিহাসের খাতায় নাম তুললেন। উমরান মালিক সোশ্যাল মিডিয়ায় গতিতে ট্রেন্ডিং শুরু করেছেন। জম্মু ও কাশ্মীরের তরুণ পেস বোলার উমরান মালিক ১৫৫ কিলোমিটার গতিতে শুধু বলই করেননি সেই বলে তিনি উইকেটও শিকার করলেন। এদিন তিনি ৪ ওভার বল করে ২৭ রান দিয়ে ২ উইকেট শিকার করলেন।

প্রথমে ব্যাট করে ভারতীয় দল ১৬২ রানের টার্গেট দেয়। টিম ইন্ডিয়ার শুরুটা ভালো হয়নি এবং সূর্যকুমার যাদব, হার্দিক পান্ডিয়া এবং সঞ্জু স্যামসন তিনজনই তাড়াতাড়ি ফিরে আসেন। দীপক হুডা এবং অক্ষর প্যাটেল শেষ সময়ে দ্রুত গতিতে রান করেছিলেন এবং টিম ইন্ডিয়া স্কোরবোর্ডে ১৬২ রান করতে সক্ষম হয়েছিল। ১৬৩ রান তাড়া করতে নেমে একটা ১ বলে শ্রীলঙ্কার দরকার ছিল চার রান। কিন্তু অক্ষর প্যাটেল দুরন্ত বোলিং করেন ও ভারতের জয় নিশ্চিত করেন। এদিনের ম্যাচ ২ রানে জেতে টিম ইন্ডিয়া। এরফলে সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল হার্দিক পান্ডিয়ার দল।

বন্ধ করুন