বাংলা নিউজ > ময়দান > ‘আবহাওয়া নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়’, হতাশ কেশব মহারাজ, তবে SA-এর ভাবনায় এখন শুধু T20 WC
সিরিজটি ২-২ ড্র হয়ে যায়।

‘আবহাওয়া নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়’, হতাশ কেশব মহারাজ, তবে SA-এর ভাবনায় এখন শুধু T20 WC

  • সিরিজের ফল ২-২ হয়ে যাওয়ায়, এ দিনের ম্যাচটি কার্যত ছিল ফাইনাল। স্বাভাবিক ভাবেই এই ম্যাচকে ঘিরে উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ম্যাচ করা সম্ভব হয়নি। বাতিলই করে দিতে হয়।

বৃষ্টির জন্য বাতিল হয়ে গিয়েছে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা পঞ্চম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। যার ফলে অমীমাংসিতভাবে শেষ হয়েছে সিরিজ। ফলাফল ২-২। ৩.৩ ওভার খেলা হওয়ার পরই বৃষ্টি নামে। তার পর আর খেলা শুরু করা সম্ভব হয়নি। স্বাভাবিক ভাবেই হতাশ বেঙ্গালুরুর ক্রিকেট প্রেমী দর্শকেরা। সেই সঙ্গে নিঃসন্দেহে দুই দলের প্লেয়াররাও।

চোটের কারণে তেম্বা বাভুমার বদলে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ছিলেন কেশব মহারাজ। তিনি ম্যাচের শেষে বলেন, ‘ম্যাচটি না হতে পারায় খুব হতাশ লাগছে। এটি নিঃসন্দেহে একটি উত্তেজনাপূর্ণ সফরের সমাপ্তি হতে পারত। কিন্তু আমরা আবহাওয়া নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না।’

তবে শেষ ম্যাচ না হলেও, এই বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের একটি প্রস্তুতি পর্ব যে ভারতে এসে সফল ভাবে হয়েছে, সে কথা জানাতে ভোলেননি কেশব মহারাজ। তিনি বলেছেন, ‘আপনি যদি দেখেন যে ভাবে আমরা প্রথম কয়েকটি গেম খেলেছি, আমরা কয়েকটি সমন্বয়ের চেষ্টা করেছি। বিশ্বকাপের আগে কী ভাবে দল গঠন করা হবে, তা দেখার জন্য আমরা বিভিন্ন সমন্বয়ের চেষ্টা করছি। আমরা এখানে শক্তিশালী ভারতীয় দলের বিরুদ্ধে খেলেছি ঠিকই, তবে এটাই চূড়ান্ত কিছু নয়।’

আরও পড়ুন: বৃষ্টিতে পণ্ড ম্যাচ, সান্ত্বনা ৫০ শতাংশ টিকিটের দাম ফেরৎ দিচ্ছে KSCA

আরও পড়ুন: ফুটো ছাদ, অঝোরে ঝরল জল, চিন্নাস্বামীর পরিকাঠামো নিয়ে BCCI-কে তোপ দর্শকদের: ভিডিয়ো

সিরিজের ফল ২-২ হয়ে যাওয়ায়, এ দিনের ম্যাচটি কার্যত ছিল ফাইনাল। স্বাভাবিক ভাবেই এই ম্যাচকে ঘিরে উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ম্যাচ করা সম্ভব হয়নি। বাতিলই করে দিতে হয়।

এ দিন বৃষ্টি কমার বদলে, তেজ ক্রমশ বাড়ছিল। ম্যাচ শুরু হওয়ার ঠিক আগের মুহূর্তেই প্রথমে বৃষ্টি নেমেছিল। যে কারণে দুই দলের ক্রিকেটাররা মাঠে নেমে যাওয়ার পরেও, সাজঘরে ফিরে যেতে হয়। ঢেকে দেওয়া হয় পিচ। ৫০ মিনিট পরে রাত ৭.৫০ এ খেলা আরম্ভ হয়। ১ ওভার কমিয়ে ম্যাচকে ১৯ ওভারে নিয়ে আসা হয়। 

প্রথম ওভারে প্রোটিয়া স্পিনারকে দু'টি ছক্কা হাঁকিয়ে শুরুটা ভালো করেছিলেন ঈশান কিষাণ। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারে লুঙ্গি এনগিডির বলে ১৫ রানে বোল্ড হন বাঁ-হাতি। ৩.২ ওভারে রুতুরাজকে (১০) ফেরান প্রোটিয়া পেসারই। ২৭ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় ভারত। তার পরেই আসে ঝেঁপে বৃষ্টি। যার জেরে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। সেই সময় ৩.৩ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ভারতের রান ছিল ২৮। উইকেটে ছিলেন শ্রেয়স আইয়ার এবং ঋষভ পন্ত। এর পর ম্যাচ আর শুরু করাই যায়নি। বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেন আম্পায়াররা।

বন্ধ করুন