বাংলা নিউজ > ময়দান > ভিডিয়ো: ৩৫ বলে ৬৪ রান! দেখে নিন ফিনিশার অক্ষর প্যাটেলের ঝোড়ো ম্যাচ উইনিং ইনিংস

ভিডিয়ো: ৩৫ বলে ৬৪ রান! দেখে নিন ফিনিশার অক্ষর প্যাটেলের ঝোড়ো ম্যাচ উইনিং ইনিংস

ক্রিজে তখন চলছে অক্ষর প্যাটেলের ঝড় (ছবি:এএফপি) (AFP)

৭ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান অক্ষর প্যাটেল ৩৫ বলে ৩ চার ও ৫ ছক্কার সাহায্যে অপরাজিত ৬৪ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। এই সময়ে তার স্ট্রাইকরেট ছিল ১৮২.৮৬। এ থেকেই বোঝা যায় ম্যাচে তিনি কত বড় ম্যাচ ফিনিশারের ভূমিকা পালন করেছিলেন।

হার্দিক পান্ডিয়া ও রবীন্দ্র জাদেজার অনুপস্থিতিতে টিম ইন্ডিয়ায় অলরাউন্ডার অক্ষর প্যাটেলের দায়িত্ব অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। অক্ষর প্যাটেলও এই দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন। যা দেখা গেল রবিবারের ভারত বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচে। সিরিজের দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে অক্ষর প্যাটেল ৬৪ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন এবং শেষ ওভারে একটি ছক্কা মেরে ভারতের হয়ে ম্যাচ জেতান। এর জয়ের ফলে ভারত সিরিজও জিতেছে।

এদিন প্রথমে বোলিং করে অক্ষর প্যাটেল ৯ ওভারে মোট ৪০ রান খরচ করেছিলেন। এদিন তিনি একটি উইকেটও শিকার করেন। একই সঙ্গে ব্যাটিংয়েও দারুণ পারফরমেন্স করেন। একটা সময় ভারতীয় দলের ব্যাটিং অবস্থা ভালো ছিল না। মনে হচ্ছিল টিম ইন্ডিয়া এই ম্যাচটি হারতে পারে। বিশেষজ্ঞরা মনে করছিলেন, স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ হয়তো এই ম্যাচ জিতে সিরিজ সমতা ফেরাবে। তবে,অক্ষর প্যাটেল দলের জয় নিশ্চিত করেন। তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ আর জয়ের মধ্যে বড় দেওয়াল হয়ে উঠলেন। ভারতকে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠে ছাড়লেন।

আরও পড়ুন… স্কুপ শটে পিছনে বল মারতে গিয়ে সামনে ক্যাচ প্র্যাক্টিস দিলেন বোলারকে, ফের দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো আউট গিল: ভিডিয়ো

৭ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান অক্ষর প্যাটেল ৩৫ বলে ৩ চার ও ৫ ছক্কার সাহায্যে অপরাজিত ৬৪ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। এই সময়ে তার স্ট্রাইকরেট ছিল ১৮২.৮৬। এ থেকেই বোঝা যায় ম্যাচে তিনি কত বড় ম্যাচ ফিনিশারের ভূমিকা পালন করেছিলেন। অক্ষর প্যাটেল যখন ব্যাট করতে আসেন,দলের জয়ের জন্য ১১.২ ওভারে ১০৭ রান দরকার ছিল।দেখে নিন অক্ষর প্যাটেলের সেই ঝোড়ো ইনিংস।

আরও পড়ুন… স্কুপ শটে পিছনে বল মারতে গিয়ে সামনে ক্যাচ প্র্যাক্টিস দিলেন বোলারকে, ফের দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো আউট গিল: ভিডিয়ো

জয়ের জন্য শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৮ রান। প্রথম বলে কোনো রান নিতে পারেননি অক্ষর প্যাটেল। দ্বিতীয় বলে একটি রান আসে এবং এখান থেকে সমস্যা বাড়তে থাকে, কারণ মহম্মদ সিরাজ ক্রিজে ছিলেন। তবে তৃতীয় বলে কোনও মতে রান নিতে সক্ষম হন সিরাজ। পরের বলে ছক্কা মেরে ম্যাচ জিতে নেন অক্ষর। ম্যাচ জেতানো এই ইনিংসের জন্য তিনি পেয়েছেন ম্যাচ সেরার খেতাব। ওয়ানডেতে এটাই ছিল তার প্রথম ফিফটি।

বন্ধ করুন