বাংলা নিউজ > ময়দান > ভিডিয়ো: হার্দিককে নিয়ে প্রশ্ন শুনে রেগে গেলেন প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা

ভিডিয়ো: হার্দিককে নিয়ে প্রশ্ন শুনে রেগে গেলেন প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা

প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা ও হার্দিক পান্ডিয়া

প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা যখন দল ঘোষণা করছিলেন, তখন তাকে সাংবাদিক সম্মেলনে হার্দিক পান্ডিয়া সম্পর্কিত একটি প্রশ্ন করা হয়েছিল। যা শুনে চেতন শর্মা রেগে যান।

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট সিরিজের জন্য শনিবার ভারতীয় দল ঘোষণা করা হয়েছে। রোহিত শর্মা যখন টেস্ট দলের নতুন অধিনায়ক হলেন তখন দল থেকে বাদ পড়লেন অজিঙ্কা রাহানে, চেতেশ্বর পূজারা, ইশান্ত শর্মা এবং ঋদ্ধিমান সাহা। টি-টোয়েন্টিতে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে বিরাট কোহলি ও ঋষভ পন্তকেও। প্রধান নির্বাচক চেতন শর্মা যখন দল ঘোষণা করছিলেন, তখন তাকে সাংবাদিক সম্মেলনে হার্দিক পান্ডিয়া সম্পর্কিত একটি প্রশ্ন করা হয়েছিল। যা শুনে চেতন শর্মা রেগে যান।

আসলে ফিটনেস সমস্যার কারণে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর থেকেই মাঠের বাইরে রয়েছেন তিনি। হার্দিককে আইপিএলের নতুন দল গুজরাট টাইটান্সের অধিনায়ক করা হয়েছে। মার্চের শেষে শুরু হবে আইপিএলের ১৫তম আসর। এতে খেলতে দেখা যাবে হার্দিককে। তবে তার আগেই হার্দিককে নিয়ে প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হল চেতন শর্মাকে। প্রেস কনফারেন্সে চেতন শর্মাকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল – হার্দিক প্রথম শ্রেণিতে খেলছেন না বা ফিটনেস নিয়ে কোনও আপডেট নেই। হার্দিক আইপিএলের আগে ফিট হয়ে আইপিএল খেলবেন। তারপর সেই ভিত্তিতে তিনিও জায়গা পাবেন টিম ইন্ডিয়াতে। এ বিষয়ে আপনার কী কিছু বলার আছে?

প্রশ্নের উত্তরে চেতন বলেন, ‘আমরা সব খেলোয়াড়কে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে বলেছি। ঘরোয়া ক্রিকেটে যেসব খেলোয়াড় খেলছেন আমরা তাদের ওপর নজর রাখছি। দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে নির্বাচক কমিটির পাঁচজন সদস্য মিলে দল নির্বাচন করেন। আমরা কাকে নির্বাচন করব আর কাকে করব না তা কেউ বলবে না। বাচ্চার সমালোচনা করবেন না। তাকে সমর্থন করুন। আমাদের ভুলে গেলে চলবে না যে তিনি দেশের জন্য দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন।’ 

হার্দিককে বিসিসিআই এবং নির্বাচক কমিটি তার ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে বলেছিল। তাকে জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে যেতে বলা হয়েছিল। চেতন শর্মার মতে, হার্দিক এখনও টিম ইন্ডিয়াতে ফেরার জন্য ফিট নন। তিনি বলেন, ‘হার্দিক ভারতীয় দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিলেন। সে শতভাগ ফিট হলেই আমরা তার নাম পুনর্বিবেচনা করব।’

বন্ধ করুন