বাংলা নিউজ > ময়দান > ভিডিয়ো- নিজের হাতে করা বাগান থেকে টাটকা সব্জি তুলে পালং, বেগুন রান্না করছেন সচিন

ভিডিয়ো- নিজের হাতে করা বাগান থেকে টাটকা সব্জি তুলে পালং, বেগুন রান্না করছেন সচিন

নিজের সব্জির বাগানে সচিন তেন্ডুলকর।

ভালো রান্না করেন বলে সচিনের খ্যাতি আছে। এখন তিনি নিজের বাগানে সব্জি চাষে মেতেছেন। বাগান থেকে টাটকা সব্জি তুলে নিয়ে গিয়ে বিভিন্ন রান্না করছেন। তিনি আবার দাবি করেছেন, তাঁর বাগানে যে সব্জি তিনি চাষ করেছেন, তার চেয়ে বেশি বিশুদ্ধ অন্য কিছু হতে পারে না।

টাটকা মূলো, পালং, ক্যাপসিকাম, ছোলা, বেগুন- কী নেই তাঁর সব্জির বাগানে। নিজের সাঝের বাগান থেকে টাটকা সব্জি তুলতে দেখা গিয়েছে স্বয়ং সচিন তেন্ডুলকরকে। তার শেষ ইনস্টাগ্রাম পোস্টে মাস্টার ব্লাস্টার তাঁর সব্জি বাগান ঘুরিয়ে দেখান। সেখানে তিনি নানা ধরনের সব্জি চাষ করেছেন।

ক্লিপটিতে দেখা যায় যে, সচিন তেন্ডুলকর তাঁর বাগান থেকে মূলো তুলছেন। এবং তার পরে ছোলা চাষ হয়েছে, সেটা ঘুরিয়ে দেখান। পাশাপাশি তিনি দেখান যে, কিছু ক্যাপসিকাম আলাদা জায়গায় তিনি চাষ করেছেন। এছাড়াও বাগানে বেগুনের সারিও দেখা গিয়েছে। তাঁর সব্জি বাগানের বেগুন দিয়েই তিনি ভর্তা বানিয়েছিলেন। পাশাপাশি বেগুনকে টুকরো করে কেটে, তাতে হলুদ এবং অন্যান্য মশলা মাখিয়ে ভাজাও করেছিলেন।

আরও পড়ুন: ছক্কা হাঁকিয়ে পরের ডবল সেঞ্চুরিটা করতে চাই- টিম ম্যানেজমেন্টকে বার্তা ইশানের?

তারকা ক্রিকেটার তার পরে তাঁর পালং শাক বাগানের দিকে এগিয়ে যান এবং কিছু টাটকা পালং শাক পাতা সংগ্রহ করেন। বলেনস ‘এখন আমি এটা বাড়িতে নিয়ে গিয়ে রান্না করব।’ সচিন বলেছেন যে. তিনি তাঁর মায়ের রেসিপি ব্যবহার করবেন। মাস্টার ব্লাস্টের কিন্তু খুব ভালো রান্নাও করতে পারেন।

ভিডিয়োর শেষের দিকে সচিন তেন্ডুলকর যোগ করেছেন যে, তাঁর বাগানে যে সব্জি তিনি চাষ করেছেন, তার চেয়ে বেশি বিশুদ্ধ অন্য কিছু হতে পারে না। তিনি বাগানের থেকে এক ঝুড়ি ভরে তাজা সাদা মূলো, লাল মূলা এবং পালং শাক তুলে বাড়িতে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বলেছেন, এই সব্জি দেখলে বাড়ির সকলে খুব খুশি হবেন।

এ দিকে অসমের গুয়াহাটিতে বিরাট কোহলি সচিনের রেকর্ড যেমন স্পর্শ করেছেন, তেমনই একটি ক্ষেত্রে তাঁকে ছাপিয়েও গিয়েছেন। সচিন অবশ্য এতে উচ্ছ্বসিত। প্রথম একদিনের ম্যাচে ভারতের ৩৭৩ রানের ইনিংসে কোহলি একাই করেছিলেন ৮৭ বলে ১১৩ রান। সেই সঙ্গে তিনি ঘরের মাঠে এক দিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সচিনের ২০টি শতরানের রেকর্ড তিনি স্পর্শ করেছিলেন। ঘরের মাঠে ১৬৪টি এক দিনের ম্যাচ খেলেছিলেন সচিন। আর কোহলি দেশের মাটিতে ২০টি শতরান করলেন ১০২টি ম্যাচ খেলে।

আরও পড়ুন: তালিবানি অত্যাচারের প্রতিবাদ, আফগানিস্তানের সঙ্গে সিরিজ বাতিল করল অস্ট্রেলিয়া

অন্য একটি পরিসংখ্যানে সচিনকে ছাপিয়ে গিয়েছেন কোহলি। ভারত-শ্রীলঙ্কা এক দিনের ক্রিকেটের লড়াইয়ে সব থেকে বেশি শতরান করার কৃতিত্ব এত দিন যৌথ ভাবে সচিন এবং কোহলির দখলে ছিল। দু’জনেই আটটি করে শতরান করেছিলেন। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সচিন ৮৪টি একদিনের ম্যাচে আটটি শতরান করেছিলেন। গুয়াহাটিতে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে নিজের নবম শতরান করলেন কোহলি। তার জন্য তিনি নিয়েছেন মাত্র ৪৮টি ম্যাচ।

কোহলির এই ইনিংসের পর উচ্ছ্বসিত সচিনও। সঙ্গে তিনি ভারতের টপ অর্ডারকেও কৃতিত্ব দিয়েছেন। তিনি টুইট করে লিখেছেন, ‘এই ভাবে পারফর্ম করতে থাকো, বিরাট। ভারতের মাথা উঁচু করো। টপ অর্ডারে দুর্দান্ত ব্যাটিং পারফরম্যান্স!’

বন্ধ করুন