বাংলা নিউজ > ময়দান > ইংল্যান্ড সফরের মাঝেই ২০ দিনের জন্য বায়ো-বাবল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে কোহলিদের, কেন জানেন?
টিম ইন্ডিয়া। ছবি- গেটি।
টিম ইন্ডিয়া। ছবি- গেটি।

ইংল্যান্ড সফরের মাঝেই ২০ দিনের জন্য বায়ো-বাবল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে কোহলিদের, কেন জানেন?

  • শর্তসাপেক্ষে জৈব-বলয় থেকে সাময়িক মুক্তি মিলতে পারে টিম ইন্ডিয়ার।

স্বস্তির বিরতি বললে মোটও ভুল বলা হবে না। যদি খেলা থেকে বিরতি শারীরিক ক্লান্তি দূর করার জন্য প্রয়োজনীয় হয়, তবে বায়ো-বাবলের বদ্ধ পরিবেশ থেকে মুক্তি নিঃসন্দেহে মানসিক ক্লান্তি দূর করবে টিম ইন্ডিয়ার তারকা ক্রিকেটারদের। বিরাট কোহলিদের জন্য সেরকমই সাময়িক বিরতির বন্দোবস্ত করা হতে চলেছে ইংল্যান্ড সফরে।

ইংল্যান্ডে উড়ে যাওয়ার আগে ভারতীয় দল মুম্বইয়ের বায়ো-বাবলে ছিল। ইংল্যান্ডে পৌঁছনোর পর সাউদাম্পটনের বায়ো-বাবলে ঢুকে পড়ে টিম ইন্ডিয়া। ইংল্যান্ড সফর শেষ করে পুনরায় আমিরশাহিতে আইপিএলের বায়ো-বাবলে থাকতে হবে ক্রিকেটারদের। তাই খেলোয়াড়দের মানসিক স্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখেই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের পর বায়ো-বাবল থেকে সাময়িক মুক্তি দেওয়া হতে পারে কোহলিদের।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল শেষ হবে ২২ জুন। রিজার্ভ ডে হিসেবে নির্ধারিত রয়েছে ২৩ জুন। ২৪ জুন থেকে আর বায়ো-বাবলে আটকে রাখা হবে না ভারতীয় ক্রিকেটারদের। যেহেতু ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের আগে প্রায় দেড়মাস সময় হাতে থাকছে, তাই ছুটি কাটিয়ে ১৪ জুলাই পুনরায় বায়ো-বাবলে একজোট হবেন ভারতীয় তারকারা। উল্লেখ্য, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের ৫ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে শুরু হবে ৪ অগস্ট।

সুতরাং, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের পর ভারতীয় দল ২০ দিনের জন্য বায়ো-বাবল থেকে মুক্তি পাবে। সেই সময়ে পরিবারের সঙ্গে ইংল্যান্ডের মধ্যেই যে কোনও জায়গায় ঘুরে বেড়াতে পারবেন ক্রিকেটাররা। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে এমন খবর জানিয়েছেন বিষয়টি নিয়ে অবগত টিম ম্যানেজমেন্টের এক সূত্র।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের কাছ থেকে আরও জানা গিয়েছে যে, সাময়িক এই ছুটিতে ইংল্যান্ডের বাইরে যেতে পারবেন না ক্রিকেটাররা। করোনা পরিস্থিতিতে হঠাৎ করে বিদেশি উড়ানে নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যায়। তাই কোহলিরা ইংল্যান্ডের মধ্যেই ছুটি কাটাতে পারবেন। সেক্ষেত্রে পুনরায় নির্দিষ্ট দিনে বায়ো-বাবলে ঢুকে পড়তে অসুবিধা হবে না ক্রিকেটারদের।

বন্ধ করুন