বাংলা নিউজ > ময়দান > বুমরাহকে টেস্টে সুযোগ দেওয়ার নেপথ্যে তিনি, শেষলগ্নে দাবি রবি শাস্ত্রীর
রবি শাস্ত্রী ও বিরাট কোহলি (ছবি:পিটিআই)
রবি শাস্ত্রী ও বিরাট কোহলি (ছবি:পিটিআই)

বুমরাহকে টেস্টে সুযোগ দেওয়ার নেপথ্যে তিনি, শেষলগ্নে দাবি রবি শাস্ত্রীর

  • বুমরাহ ইংল্যান্ড সফরে দ্রুততম ভারতীয় ফাস্ট বোলার হিসাবে টেস্ট ক্রিকেটে ১০০ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব অর্জন করেন।

২০১৩ সালে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে আইপিএলে যখন অনামী ও টেক্সটবুক বোলিং অ্যাকশানের বাইরের এক বোলারের অভিষেক ঘটেছিল, তখন হয়তোই কেউ ভাবতে পেরেছিল যে কিছু বছরের মধ্যেই সেই বোলার ভারতীয় দলের বোলিং বিভাগের সেরা অস্ত্র হয়ে উঠবে। তিনি আর কেউ নন জসপ্রীত বুমরাহ। আইপিএল থেকে বিশ্বক্রিকেটের অন্যতম সেরা যাত্রাপথটা বুমরাহ কিন্তু খুব দ্রুতই অতিক্রম করেছেন।

তবে প্রথমে সীমিত ওভারের ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ হিসাবে ধরা হলেও বুমরাহের টেস্ট আঙিনায় অভিষেক কী করে ঘটল জানেন? The Guardian-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রবি শাস্ত্রী জানান, ‘কেউ বিশ্বাস করেনি যে জসপ্রীত বুমরাহ ভাল টেস্ট বোলারও হতে পারে। ওকে সবাই সাদা বলের ক্রিকেটের বিশেষজ্ঞ হিসাবেই ভাবত। কিন্তু আমি কোচ হওয়ার পর সবার আগে নিজেকে প্রশ্ন করি কী করে বিদেশের মাটিতে ২০ উইকেট নেওয়া যেতে পারে। অতীতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে আমি প্রচুর ক্রিকেট খেলেছি এবং সেই থেকেই আমার ধারণা, যে বিদেশের মাঠে জিততে দলে অন্তত চারটে ভাল ফাস্ট বোলার দরকার।’

২০১৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে লাল বলের ক্রিকেটে বুমরাহের আগমন ঘটে। সেই সিরিজের আগে গোপন অস্ত্র বুমরাহকে বিশ্বক্রিকেট থেকে খানিকটা লুকিয়ে রাখতে চেয়েছিলেন বলেও দাবি করেন শাস্ত্রী। তাঁর বদান্যতায় বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেটের বোলিং বিভাগের সেরা অস্ত্রের অভিষেক দক্ষিণ আফ্রিকার ফাস্ট বোলিং সহায়ক পিচে হয় বলে দাবি করেন ভারতীয় কোচ।

‘আমি বুমরাহকে কেপ টাউনে প্রথম টেস্টে নামিয়ে সকলকে চমকে দিতে চেয়েছিলাম। সেই কারণেই সিরিজ শুরু হওয়ার বেশ কয়েক মাস আগেই বিরাটকে নিজের পরিকল্পনার বিষয়ে জানিয়ে নির্বাচকদের বুমরাহকে ভারতীয় পিচে খেলিয়ে ওর দক্ষতাকে সকলের সামনে আনতে মানা করেছিলাম। এই ঘটনার পর তিন বছর কেটে গিয়েছে এবং এতদিনে ও ১০১টা টেস্ট উইকেটও নিয়ে ফেলেছে, যা এককথায় অনবদ্য।’ দাবি শাস্ত্রীর।

সেই সিরিজে ভারত ২-১ ব্যবধানে পরাজিত হলেও বুমরাহের অভিষেকেই এবি ডি'ভিলিয়র্সের উইকেট ছিটকে দেওয়া ক্রিকেট প্রেমীদের মনে স্মরণীয় হয়ে আছে। বিগত তিন বছরে বুমরাহ ভারতীয় পেস বোলিং আক্রমণকে নেতৃত্ব দেওয়ার পাশপাশি দ্রুততম ভারতীয় ফাস্ট বোলার হিসাবে ১০০ উইকেটের গন্ডি টপকেছেন। ২৭ বছর বয়সী ভারতীয় তারকা যে শাস্ত্রীর সিদ্ধান্তের মর্যাদা রাখতে পেরেছেন, তা আলাদা করে বলে দিতে হয়না।

বন্ধ করুন