বাড়ি > ময়দান > হঠাৎই কোহলির হাতে গ্লাভস তুলে দিয়ে ধোনি বলেন, দু-তিন ওভার উইকেটকিপিং করে দে
উইকেটকিপারের ভূমিকায় কোহলি। ছবি- টুইটার।
উইকেটকিপারের ভূমিকায় কোহলি। ছবি- টুইটার।

হঠাৎই কোহলির হাতে গ্লাভস তুলে দিয়ে ধোনি বলেন, দু-তিন ওভার উইকেটকিপিং করে দে

  • বিরাট জানালেন, আন্তর্জাতিক ম্যাচে তাঁর উইকেটকিপিং করার রহস্য।

ব্যাটসম্যান কোহলি সম্পর্কে কাউকে নতুন করে জানানোর কিছু নেই। ক্যাপ্টেন কোহলির মাহাত্ম্যও ইতিমধ্যেই সবাই দেখেছেন। তবে উইকেটকিপার কোহলিকে নিতান্ত অপরিচিত মনে হতে পারে ক্রিকেটপ্রেমীদের। যদিও কারও কারও চোখে ভেসে উঠতেই পারে গ্লাভস হাতে কোহলির উইকেটকিপিং করার ছবি।

প্র্যাকটিসে নিছক শখ মেটানোর তাগিদ কয়েকবার গ্লাভস হাতে কয়েকটা বল ধরেছেন ভারত অধিনায়ক। তবে তাই বলে আন্তর্জাতিক ম্যাচে উইকেটকিপিং করার অভিজ্ঞতা হবে তাঁর, এমনটা বোধ হয় স্বপ্নেও ভাবেনিন বিরাট নিজেও। ঠিক সেটাই ঘটেছিল ২০১৫ সালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একটি ওয়ান ডে ম্যাচে।

ইনিংসের ৪৪তম ওভারে কোহলির হাতে দস্তানা জোড়া তুলে দিয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন ধোনি। এক ওভার পরেই তিনি ফিরে এসে পুনরায় উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব সামলান। বিসিসিআইয়ের ‘ওপেন নেটস উইথ মায়াঙ্ক’ চ্যাট শো-এ আগরওয়াল কোহলির কাছে জানতে চান, এমনটা কীভাবে ঘটেছিল।

উত্তরে বিরাট বলেন, ‘কখনও সুযোগ পেলে মাহি ভাইকে জিজ্ঞাসা কোরো, এমনটা কীভাবে হয়েছিল। মাহি ভাই হঠাৎই আমাকে বলে, দু-তিন ওভার উইকেটকিপিং করে দে। আমি উইকেটকিপিং করি এবং প্রয়োজন মতো ফিল্ডিংয়েও রদবদল করি। তখন বুঝতে পারি, মাই ভাইকে প্রত্যেকটা বলে খেয়াল রাখতে হয়। সেইসঙ্গে ফিল্ডিংটাও সাজাতে হয়। কাজটা মোটেও সহজ নয়।’

আসলে ধোনি সেই সময় মাঠ ছেড়ে বাথরুমে গিয়েছিলেন। তাই কোহলিকে উইকেটকিপিং করতে হয়। কোহলি জানান তখন তার কী মনে হয়েছিল। তাঁর কথায়, ‘সমস্যা ছিল একটাই। বল করছিল উমেশ যাদব। ও খুব জোরে বল করছিল। মনে হচ্ছিল বুঝি এবার বল এসে নাকে লাগবে। তাই ভাবছিলাম হেলমেট পরব। পরে মনে হয় সেটা খুব অপমানজনক দেখাবে।’

বন্ধ করুন