বাংলা নিউজ > ময়দান > অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মাঝেই বিরাটের পিতৃত্বকালীন ছুটি, উঠছে নিন্দার ঝড়
পিতৃত্বকালীন ছুটির জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একটি মাত্র টেস্টে খেলেই দেশে ফিরবেন বিরাট।
পিতৃত্বকালীন ছুটির জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একটি মাত্র টেস্টে খেলেই দেশে ফিরবেন বিরাট।

অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মাঝেই বিরাটের পিতৃত্বকালীন ছুটি, উঠছে নিন্দার ঝড়

  • সিরিজ শুরুর আগেই তাঁকে ঘিরে তৈরি হয়েছে নানা বিতর্ক। বেশিরভাগটাই দল নির্বাচন ঘিরে। তবে এর বাইরেও এবার তৈরি হয়েছে এক নতুন বিতর্ক।

শুভব্রত মুখার্জি

করোনা পরবর্তীতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের মধ্যে দিয়েই প্রত্যাবর্তন ঘটতে চলেছে ভারতীয় জাতীয় ক্রিকেট দলের। আইপিএল ফাইনাল ইতিমধ্যেই খেলা হয়ে গিয়েছে। এবার দুবাই থেকেই সোজা সিডনি উড়ে যাবেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। কিন্তু এই সিরিজ শুরুর আগেই তাঁকে ঘিরে তৈরি হয়েছে নানা বিতর্ক। বেশিরভাগটাই দল নির্বাচন ঘিরে। তবে এর বাইরেও এবার তৈরি হয়েছে এক নতুন বিতর্ক । যার ফলে উঠেছে নিন্দার ঝড়ও।

বিরুষ্কা জুটি আগেই ঘোষনা করেছিলেন তাদের কোল আলো করে আসছে সন্তান। বাবা হতে চলেছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি আর সেই কারণের জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একটি মাত্র টেস্টে খেলেই দেশে ফিরবেন বিরাট। তার পিতৃত্ব কালীন ছুটি মন্জ্ঞুর ও করে দিয়েছে বোর্ড। তাই প্রথম টেস্ট খেলার পরেই স্ত্রী অনুষ্কা শর্মার পাশে থাকতে দেশে ফিরে আসবেন।

প্রসঙ্গত গত মাসেই অ্যাডিলেড টেস্ট খেলে বাড়ি ফেরার অনুমতি চেয়েছিলেন বিরাট যা তাঁকে দিয়েছে বোর্ড।এই নিয়েই এবার দেখা দিয়েছে নয়া বিতর্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রিকেট সমর্থকদের একাংশের রোষের মুখে পড়েছেন বর্তমান ভারতের অধিনায়ক। অনেকেই ধোনির উদাহরণও টেনে এনেছেন। কারণ মেয়ে জিভার জন্মের সময় ভারতের খেলা থাকার ফলে দেশে ফেরেননি তৎকালীন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। অস্ট্রেলিয়া–নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দিতে ব্যস্ত ছিলেন মাহি। সেই বিষয়টি সামনে তুলেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কোহলিকে খোঁচা দিয়েছেন নেটিজেনদের একাংশের।

আসন্ন সিরিজে অ্যাডিলেডে অনুষ্ঠিত দিন–রাতের টেস্টের পরই দেশে ফিরবেন বিরাট । এই প্রসঙ্গে ধারাভাষ্যকার হর্ষ ভোগলে কোহলিকে সমর্থন জানান। তবে তিনি এটা জানাতে ভোলেননি যে এই মুহূর্তে দেশের সেরা ক্রিকেটারের অনুপস্থিতিতে বিপাকে পড়তে পারেভারতীয় দলকেই। এমনটাই টুইটও করেন ভোগলে। তার এই টুইটের পরই নেটিজেনদের একাংশ সমালোচনায় মুখর।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে জিভার জন্মের সময় ভারতীয় দলের অধিনায়ক ছিলেন ধোনি। সেসময় বিশ্বকাপ খেলতে অস্ট্রেলিয়াতে ছিল ভারতীয় দল। ৬ ফেব্রুয়ারি জন্মেছিল জিভা। তাও দেশের কথাকে অগ্রাধিকার দিয়ে সেসময় দেশে ফেরেননি ধোনি। সে সময় ধোনি জানিয়েছিলেন বিশ্বকাপে দেশকে নেতৃত্ব দেওয়াই তার সবথেকে বড় কাজ। বাকি সবকিছুর জন্য পরে সময় রয়েছে। ধোনির এই বক্তব্য তুলে ধরেই বিরাটকে খোঁচা দিচ্ছেন নেটিজেনরা। এখনও পর্যন্ত মুখ খুলে এর কোন ও পাল্টা জবাব দেননি বিরাট।

বন্ধ করুন