বাংলা নিউজ > ময়দান > ফিটনেসের ঘাটতি কমাতে কোহলির পরামর্শেই বিরিয়ানি ছেড়েছিলেন সরফরাজ
কোহলি ও সরফরাজ

ফিটনেসের ঘাটতি কমাতে কোহলির পরামর্শেই বিরিয়ানি ছেড়েছিলেন সরফরাজ

  • কোহলির পরামর্শে আমি ফের খাওয়া দাওয়ার ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা নিয়ে আসি। গত দুই বছরে ফিটনেসের প্রতি অনেক মনোযোগী হয়েছি। শুধু খেলার মরশুমেই নয়, যখন খেলা থাকে না, আমি তখনও স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিই।

শুভব্রত মুখার্জি: ফিটনেসকে প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি ঠিক কতটা গুরুত্ব দেন তা কারও অজানা নয়। এবার ফিটনেস নিয়ে বিরাটের পরামর্শ পাওয়ার কথা জানালেন মুম্বই তথা আরসিবির প্রতিভাবান নবীন ক্রিকেটার সরফরাজ খান। সরফরাজ জানালেন বিরাট তাকে বলেছিলেন তার ফিটনেসে ঘাটতি রয়েছে। তাকে অনেক পরিশ্রম করতে হবে। পাশাপাশি সরফরাজের সাধের বিরিয়ানি খাওয়া ও ছাড়তে হবে জানিয়েছিলেন তিনি। বিরিয়ানি শুধু নয় ভাত জাতীয় জিনিস যতটা কম খাওয়া যায় তার পরামর্শ দিয়েছিলেন বিরাট।

সরফরাজ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছেন এই মুহূর্তে তিনি যে ফিটনেসটুকু অর্জন করেছেন তার নেপথ্যে রয়েছে বিরাট কোহলির হাত। তিনি বলেন ‘আমি যখন ২০১৫-১৬ মরশুমে আইপিএল খেলি, তখন আমার ফিটনেস মোটেও ভালো ছিল না। কোহলিও আমাকে সেটাই বলেছিলেন। এরপর আমি আমার ফিটনেসে উন্নতি ঘটানোর লক্ষ্যে পরিশ্রম শুরু করি। এরপর ফের আমার ওজন বেড়ে যায়। কিন্তু কোহলির পরামর্শে আমি ফের খাওয়া দাওয়ার ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা নিয়ে আসি। গত দুই বছরে ফিটনেসের প্রতি অনেক মনোযোগী হয়েছি। শুধু খেলার মরশুমেই নয়, যখন খেলা থাকে না, আমি তখনও স্বাস্থ্যের দিকে নজর দিই।

সরফরাজ আরও যোগ করেন ‘আগে যখন খাদ্যাভ্যাস নিয়ে আমাকে কেউ কিছু বলেননি, তখন অনেক কিছুই খেতাম। এখন কোহলির পরামর্শের পর আমি খাদ্যাভ্যাস নিয়ে অনেক সচেতন। বাড়িতে আগে প্রতিদিন আমিষ জাতীয় খাবার খেতাম। এখন সেসব খাই না। এখন বিরিয়ানি বা ভাতজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলি। হয় রবিবারে খাই, না হয় কোনও অনুষ্ঠানে।’

এই তরুণ ক্রিকেটার দেশের নিজের টেস্ট খেলার স্বপ্নের কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন ‘প্রতিনিয়ত উন্নতি করার আশা নিয়েই আমি খেলি। এটাই আমার সবচেয়ে বড় আবেগের জায়গা। ভাগ্য ভালো হলে একদিন অবশ্যই ভারতের হয়ে খেলব।'

বন্ধ করুন