বাংলা নিউজ > ময়দান > ২০১৪ সালে শাস্ত্রীর ভোক্যাল টনিক তাঁকে ভিতর থেকে নাড়িয়ে দিয়েছিল, দাবি কোহলির
রবি শাস্ত্রী এবং বিরাট কোহলি।
রবি শাস্ত্রী এবং বিরাট কোহলি।

২০১৪ সালে শাস্ত্রীর ভোক্যাল টনিক তাঁকে ভিতর থেকে নাড়িয়ে দিয়েছিল, দাবি কোহলির

  • ২০১৪ সালে রবি শাস্ত্রী ৮ মাসের জন্য ইন্ডিয়া ক্রিকেট টিমের ডিরেক্টর হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন। সেই সময়ে ড্রেসিংরুমে প্লেয়ারদের উদ্দীপ্ত করতে ভারতীয় দলের বর্তমান কোচ যে ভোক্যাল টনিক দিয়েছিলেন, সেটা নাকি বিরাটকে একেবারে নাড়িয়ে দিয়েছিল।

ওভাল টেস্টেও ফের ব্যর্থ ভারতীয় ব্যাটিং অর্ডার। রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে না খেলানো নিয়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে চলেছে। অনেকেই মনে করছেন, অশ্বিনের সঙ্গে ভারত অধিনায়কের ব্যক্তিগত কোনও ঝামেলার জেরেই বিশ্বের এক নম্বর তারকাকে দলের বাইরে থাকতে হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে বিরাট কোহলি হঠাৎ করে কোচ রবি শাস্ত্রীতে নিজের মুগ্ধতার কথা নতুন করে জানালেন।

২০১৪ সালে রবি শাস্ত্রী ৮ মাসের জন্য ইন্ডিয়া ক্রিকেট টিমের ডিরেক্টর হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন। সেই সময়ে ড্রেসিংরুমে প্লেয়ারদের উদ্দীপ্ত করতে ভারতীয় দলের বর্তমান কোচ যে ভোক্যাল টনিক দিয়েছিলেন, সেটা নাকি বিরাটকে একেবারে নাড়িয়ে দিয়েছিল। কোহলি বলছিলেনও, ‘ওর অভিজ্ঞতা আমাদের জন্য অমূল্য। এবং সেগুলি অব্যাহত রয়েছে। কাজের সূত্রে আমাদের সঙ্গে যে বন্ডিং সেটা কিন্তু ২০১৪ সাল থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছিল। আমি বহু বার ওর সঙ্গে দেখা করেছি, কারণ বিশ্বব্যাপী ক্রিকেট নিয়ে ওর বক্তব্য খুবই স্পষ্ট এবং যুক্তিযুক্ত ছিল। ওর ধারাভাষ্যের দক্ষতা নিয়ে আমরা সব সময়েই উচ্ছ্বসিত থাকি। আসলে সেই সময় থেকেই আমরা ওর সঙ্গে কাজ শুরু করেছিলাম।’

তিনি আরও বলেছেন, ‘আমার মনে আছে, ২০১৪ সালে ও আমাদের প্রথম বার পেপটক দিয়েছিল। একটি দল হিসাবে আমরা তখন ছন্দে ছিলাম না। এবং পারফরম্যান্সের দিক থেকে কিছুই ভাল ভাবে ঘটছিল না। তখন ওকে আনা হয়েছিল দ্বিতীয়বারের জন্য। যাতে ও পরিস্থিতি সামলে দিতে পারে।’

এর সঙ্গেই কোহলি যোগ করেছেন, ‘আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি যে আমাদের কাজের সম্পর্ক বিশ্বাস এবং পারস্পরিক শ্রদ্ধার উপর ভিত্তি করে গড়ে উঠেছে। ও যে দৃষ্টিভঙ্গি দেখিয়েছে, তাতে ভারতীয় ক্রিকেটের উন্নতি হয়েছে।’

অনেকেই মনে করছেন, রবি শাস্ত্রীর চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে আসছে। যাতে এর পরেও কোচ হিসেবে শাস্ত্রীকেই নিযুক্ত করা হয়, সেটাই চাইছেন বিরাট। আর তাই এ ভাবে রবি শাস্ত্রীর প্রশংসার মধ্যে দিয়েই নিজের মনের ইচ্ছের কথা বুঝিয়ে দিয়েছেন বিরাট কোহলি।

বন্ধ করুন