বাংলা নিউজ > ময়দান > সপ্তাহ ঘুরলেই শুরু যুব বিশ্বকাপ, কোহলি থেকে উইলিয়ামসন, দেখুন টুর্নামেন্টের প্রথম ৭টি আসর থেকে উঠে এসেছেন কোন কোন তারকা?
যুব বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দল। ছবি- আইসিসি।
যুব বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দল। ছবি- আইসিসি।

সপ্তাহ ঘুরলেই শুরু যুব বিশ্বকাপ, কোহলি থেকে উইলিয়ামসন, দেখুন টুর্নামেন্টের প্রথম ৭টি আসর থেকে উঠে এসেছেন কোন কোন তারকা?

  • ১৪ জানুয়ারি থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে বসবে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আসর।

১৪ জানুয়ারি থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে বসবে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের আসর। তার আগে দেখে নেওয়া যাক বিরাট কোহলি থেকে কেন উইলিয়ামসনের মতো কোন কোন তারকাকে উপহার দিয়েছে টুর্নামেন্টের প্রথম ৭টি সংস্করণ।

১৯৮৮: ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে উদ্বোধনী মরশুমে যুব বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয় অস্ট্রেলিয়া। সেবার পাকিস্তান দলে ছিলেন ইনজামাম উল হক। টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেন আথারটন। ব্রায়ান লারা ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্যাপ্টেন। ভারতের হয়ে মাঠে নামেন প্রবীণ আমরে, নয়ন মোঙ্গিয়া, ভেঙ্কটপতি রাজুরা।

১৯৯৮: ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ইংল্যান্ড। ব্রিটিশ দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন গ্রেম সোয়ান। বাংলাদেশের হয়ে সেই টুর্নামেন্টে মাঠে নামেন মুশফিকুর রহিম। ক্রিস গেইল ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে। ভারতের হয়ে মাঠে নামেন বীরেন্দ্রে সেহওয়াগ, হরভজন সিং, লক্ষ্মীরতন শুক্লা।

২০০০: ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে প্রথমবার যুব বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। মহম্মদ কাইফের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দলের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেন যুবরাজ সিং। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে মাঠে নামেন গ্রেম স্মিথ। ব্রেন্ডন ম্যাকালাম ছিলেন নিউজিল্যন্ড দলে। শোয়েব মালিক মাঠে নামেন পাকিস্তানের হয়ে।

২০০২: ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় অস্ট্রেলিয়া। হাসিম আমলা ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার ক্যাপ্টেন। শন মার্শ, জর্জ বেইলিরা ছিলেন অস্ট্রেলিয়া দলে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ছিলেন ডোয়েন ব্র্যাভো। পার্থিব প্যাটেল, ইরফান পাঠানরা ছিলেন ভারতীয় দলে।

২০০৪: ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান। রামদিন, রামপালরা ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে। শিখর ধাওয়ান টুর্নামেন্টের সেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হন। ভারতের স্কোয়াডে ছিলেন আম্বাতি রায়াড়ু, দীনেশ কার্তিক, সুরেশ রায়না, আরপি সিং, রবীন উথাপ্পারা। বাংলাদেশের হয়ে নজর কাড়েন এনামুল হক।

২০০৬: ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান। পাকিস্তানের ক্যাপ্টেন ছিলেন সরফরাজ আহমেদ। দলে ছিলেন ইমদ ওয়াসিম। ভারতের হয়ে মাঠে নামেন রোহিত শর্মা, চেতেশ্বর পূজারা, রবীন্দ্র জাদেজা, পীযূষ চাওলারা। টুর্নামেন্টে আয়ারল্যান্ডের হয়ে মাঠে নামেন ইয়ন মর্গ্যান। অস্ট্রেলিয়া দলে ছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার।

২০০৮: ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় বিরাট কোহলির ভারত। ভারতীয় দলে ছিলেন শ্রীবত্স গোস্বামী, মণীশ পান্ডে, রবীন্দ্র জাদেজা, সিদ্ধার্থ কউলরা। নিউজিল্যান্ড দলে ছিলেন কেন উইলিয়ামসন, টিম সাউদি, ট্রেন্ট বোল্টরা। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে মাঠে নামেন ওয়েনি পার্নেল।

বন্ধ করুন