বাংলা নিউজ > ময়দান > বিরাটের হাফ-সেঞ্চুরি, দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়লেন সুরেশ রায়না
দীনেশ কার্তিক ও সুরেশ রায়না। ছবি- টুইটার।
দীনেশ কার্তিক ও সুরেশ রায়না। ছবি- টুইটার।

বিরাটের হাফ-সেঞ্চুরি, দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়লেন সুরেশ রায়না

  • শতরান হাতছাড়া কেদারের, লড়াকু ইনিংস দীনেশ কার্তিকের।

চলতি সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-২০ ট্রফিতে দারুণ ফর্মে রয়েছেন বিরাট সিং। ঝাড়খণ্ডের তরুণ ব্যাটসম্যান তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে করেন ২৩ রান। বাংলার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ম্যাচে ৪৭ রানের লড়াকু ইনিংস খেলেন। তৃতীয় ম্যাচে অসমের বিরুদ্ধে অপরাজিত শতরান (১০৩) করার পর এবার ওড়িশার বিরুদ্ধেও ঝোড়ো হাফ-সেঞ্চুরি করেন তিনি।

ইডেনে ওড়িশার বিরুদ্ধে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন বিরাট। ৩৭ বলের ইনিংসে তিনি ১০টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন। এছাড়া ইশান কিষাণ করেন ৩৬ বলে ৬০ রান। তিনি ৮টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন। ঝাড়খণ্ড ২০ ওভারে ৪ উইকেটের বিনিময়ে ১৮২ রান তোলে।

অন্যদিকে, ত্রিপুরার বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশকে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন সুরেশ রায়না। প্রথমে ব্যাট করে উত্তরপ্রদেশ ৬ উইকেটে ১২২ রান তোলে। মিলিন্দ কুমার ৪৮ রান করেন। রায়না ৪ ওভার বল করে ২৩ রান খরচ করেন। যদিও কোনও উইকেট পাননি তিনি।

পালটা ব্যাট করতে নেমে উত্তরপ্রদেশ ১৩.১ ওভারে মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ১২৩ রান তুলে নেয়। করণ শর্মা ৩৬ বলে ৬৮ ও সুরেশ রায়না ২৩ বলে ৩৬ রান করে অপরাজিত থাকেন। রায়না ৪টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন।

মুস্তাক আলির অন্য ম্যাচে হায়দরাবাদকে ৭ উইকেটে পরাজিত করে তামিলনাড়ু। দীনেশ কার্তিক ২টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৩০ বলে ৪০ রান করে নট-আউট থাকেন।

মহারাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ৭১ বলে ৯৯ রান করে অপরাজিত থাকেন বরোদার কেদার দেবধর। তিনি ১১টি চার ও ৪টি ছক্কা মারেন। বরোদা ৬০ রানে ম্যাচ জেতে।

বন্ধ করুন