বাড়ি > ময়দান > খেলরত্ন উঠবে কার হাতে, বিচার করবেন সেহওয়াগরা
বীরেন্দ্র সেহওয়াগ। ছবি- টুইটার।
বীরেন্দ্র সেহওয়াগ। ছবি- টুইটার।

খেলরত্ন উঠবে কার হাতে, বিচার করবেন সেহওয়াগরা

জাতীয় ক্রীড়া সম্মানের জুরি প্যানেলে বীরু-সর্দার। সব পুরস্কারের জন্য ১২ সদস্যের অভিন্ন কমিটি গঠন ক্রীড়ামন্ত্রকের।

এবছর ভারতীয় খেলাধুলোর সর্বোচ্চ সম্মান রাজীব গান্ধী খেলরত্ন উঠবে কার হাতে, তা ঠিক করবেন বীরেন্দ্র সেহওয়াগ, সর্দার সিংরা। জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারের জন্য ক্রীড়ামন্ত্রকের গঠিত জুরি প্যানেলে জায়গা পেলেন বীরু ও হকির কিংবদন্তি সর্দার।

বিতর্ক এড়াতে গত বছরের মতো এবারও সমস্ত পুরস্কারের জন্য একটি মাত্র কমিটি গঠন করেছে কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রক। ১২ সদস্যের এই কমিটিই স্থির করবে মনোনীত প্রার্থীদের মধ্যে খেলরত্ন, অর্জুন, ধ্যানচাঁদ ও দ্রোনাচার্ষ্য পুরস্কার দেওয়া হবে কাদের। যদিও দ্রোনাচার্য পুরস্কারের ক্ষেত্রে বাড়তি দু'জন বিচারককে আমন্ত্রণ জানানো হতে পারে, যাঁরা ইতিমধ্যেই এই সম্মানে ভূষিত হয়েছেন।

সেহওয়াগ ও সর্দার ছাড়া কমিটি রয়েছেন প্রাক্তন টেবিল টেনিস তারকা মোনালিসা বড়ুয়া মেহতা, প্যারা অ্যাথলিট দীপা মালিক, বক্সার ভেঙ্কটেসন দেবরাজন, ধারাভাষ্যকার মণীশ বাতাবিয়া, সাংবাদিক অলোক সিনহা ও নীরু ভাটিয়া।

এছাড়া কমিটিতে থাকবেন ক্রীড়ামন্ত্রকের প্রতিনিধি, সাইয়ের ডিরেক্টর জেনারেল সন্দীপ প্রধান, জয়েন্ট সেক্রেটারি (স্পোর্টস ডেভেলপমেন্ট) এলএস সিং ও টার্গেট অলিম্পিক পোডিয়াম প্রকল্পের সিইও রাজেশ রাজাগোপালন। কমিটির চেয়ারম্যান নিযুক্ত হয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি মুকুন্দকাম শর্মা।

প্রতি বছর ২৯ অগস্ট হকির জাদুগর ধ্যানচাঁদের জন্মদিনে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার দেওয়া হয়। এবছর করোনা মহামারির জন্য পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান দু-এক মাস পিছিয়ে দেওয়া হতে পারে।

বন্ধ করুন