বাংলা নিউজ > ময়দান > আনন্দের পরিবারে নেমে এল শোকের ছায়া, প্রয়াত কে বিশ্বনাথন
বিশ্বনাথন আনন্দ।
বিশ্বনাথন আনন্দ।

আনন্দের পরিবারে নেমে এল শোকের ছায়া, প্রয়াত কে বিশ্বনাথন

  • বেশ কয়েক মাস ধরেই চেন্নাইয়ে রয়েছেন আনন্দ। যে কারণে বাবার কাছাকাছি থাকার সুযোগ পেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন গ্র্যান্ডমাস্টার নিজে।

কয়েক দিন অসুস্থ থাকার পরেই মারা গেলেন পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বিশ্বনাথন আনন্দের বাবা কে বিশ্বনাথন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯২ বছর।

চেন্নাইয়ের এক বেসরকারি হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়েছিল। ১৫ এপ্রিল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। বাবার মৃত্যুর খবর নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন আনন্দ। বাবার মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোকাহত তিনি।

রেলের প্রাক্তন কর্তা কে বিশ্বনাথনের দুই পুত্র এবং এক কন্যা রয়েছেন। তার মধ্যে আনন্দ সবার ছোট। আনন্দের সব খেলার সাক্ষী থাকতেন তাঁরা বাবা। এমনটাই জানিয়েছেন আনন্দের স্ত্রী অরুণা। পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আবার বলেছেন, ‘আমি আমার বাবার কাছে সারা জীবণ ঋণী থাকব। আমার দাবার ক্যারিয়ার গড়ে দেওয়ার জন্য আমার মা হয়তো অনেক বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন, কিন্তু আমার বাবা ছিলেন আমার একনিষ্ট এবং উৎসাহী সমর্থক।’

বেশ কয়েক মাস ধরেই চেন্নাইয়ে রয়েছেন আনন্দ। যে কারণে বাবার কাছাকাছি থাকার সুযোগ পেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন গ্র্যান্ডমাস্টার নিজে। শেষ সময়ে এটুকুই প্রাপ্তি বলে দাবি পাঁচ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নের।

রবিবার সকালে আনন্দ টুইটে এই খবর জানিয়ে নিজের মনের যন্ত্রণার কথাই লিখেছেন। পাল্টা টুইটে তাঁকে সমবেদনা জানিয়েছেন হাজার হাজার অনুরাগী।

বন্ধ করুন