বাংলা নিউজ > ময়দান > Vitality Blast: ব্যাট হাতে এবং উইকেটের পিছনে দুরন্ত ছন্দে পাক, কিপার, সারেকে হারিয়ে অক্সিজেন পেল সাসেক্স
১৭ রানে সারেকে হারাল সাসেক্স।

Vitality Blast: ব্যাট হাতে এবং উইকেটের পিছনে দুরন্ত ছন্দে পাক, কিপার, সারেকে হারিয়ে অক্সিজেন পেল সাসেক্স

  • সারের চারটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট পড়ার পিছনে বড় ভূমিকা নিয়েছেন পাক উইকেটকিপার। সেই সঙ্গে ব্যাট হাতেও তিনিই সাসেক্সের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেছেন। সব মিলিয়ে সাসেক্সকে ম্যাচ জেতাতে বড় হাত রয়েছেন পাকিস্তানের তারকা কিপারের।

ভাইটালিটি ব্লাস্টে সারে এই মরশুমে প্রথম বার হারের মুখোমুখি হল। সাসেক্সের কাছে তারা ১৭ রানে হেরেছে। উল্টোদিকে সাসেক্স সাউথ গ্রুপে টানা পাঁচ ম্যাচে হারের পর ছয় নম্বর ম্যাচে জয় পেল। সাসেক্সের জয়ের পিছনে বড় ভূমিকা নিয়েছেন মহম্মদ রিজওয়ান।

টসে জিতে সাসেক্সকে ব্যাট করতে পাঠায় সারে। এই সিদ্ধান্তই সম্ভবত বুমেরাং হয়ে যায়। সাসেক্স প্রথমে ব্যাট করতে নেমে খুব তাড়াতাড়ি হ্যারিসন ওয়ার্ডের উইকেট হারিয়ে বসে থাকে। দলের ৪৪ রানের মাথায় ১২ করে সাজঘরে ফেরেন হ্যারিসন। তবে দলের হাল ধরেন মহম্মদ রিজওয়ান এবং আলি ওর। রিজওয়ান ৩২ বলে ৪৮ এবং অলি ওর ১৯ বলে ৩০ করে দলের ভিত শক্ত করেন।

এর পর শেষ পাতে ডেলরে রাওলিনস (১৭ বলে ৩৪) এবং জর্জ গারটন (১২ বলে ২৪) দলকে লড়াই করার মতো স্কোরে পৌঁছে দেন। ষষ্ঠ উইকেটে ২৭ বলে গুরুত্বপূর্ণ ৬০ রান তাঁরা যোগ করেন। নির্দিষ্ট ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭২ রান করে সাসেক্স। সারের গাস আটকিনসন ২ উইকেট নিয়েছেন।

আরও পড়ুন: পার পেলেন না দোষ করে, ব্যাটসম্যানকে বল ছুঁড়ে মারায় ব্রাথওয়েটকে সঙ্গে সঙ্গে শাস্তি দিলেন আম্পায়াররা: ভিডিয়ো

আরও পড়ুন: এবার বিলেতেও পুষ্পা জ্বর, মহম্মদ আমিরের 'ভাইরাল' সেলিব্রেশনের ভিডিয়ো দেখুন

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুরন্ত লড়াই করেন সারের ওপেনার উইল জ্যাকস। তবে বাকিরা সে ভাবে কেউ দাগই কাটতে পারেননি। লরি ইভান্স ১৫ বলে ২৬ করেছেন। জেমি স্মিথ ১১ বলে ১৪ করেছেন। বাকিরা দুই অঙ্কের ঘরই টপকাতে পারেননি।

উইল জ্যাকসের ৪৮ বলে ৭৬ রানের দুরন্ত ইনিংসকে ব্যর্থ করে সারে ১৫৫ রানে অল আউট হয়ে যায়। ১৭ রানে ম্যাচটি হেরে যায় তারা। মহম্মদ রিজওয়ান উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে তিনটি দুরন্ত ক্যাচ নন। সেই সঙ্গে একটি স্টাম্প আউট করেন। সারের চারটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট পড়ার পিছনে বড় হাত রয়েছে পাক উইকেটকিপারের। ব্যাট হাতেও তিনিই সাসেক্সের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেছেন। সব মিলিয়ে সাসেক্সকে ম্যাচ জেতাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেন রিজওয়ান। সাসেক্সের টাইমাল মিলস এবং রাওলিনস ২টি করে উইকেট নেন।

১১টির মধ্যে ৯টি ম্যাচ জিতে সারে ইতিমধ্যে নক আউটে পৌঁছে গিয়েছে। এর আগে তাদের একটি ম্যাচ বাতিল হওয়ায় পয়েন্ট ভাগাভাগি হয়েছে। আর এই ম্যাচটিতে তারা হারল। উল্টোদিকে ১১ ম্যাচের মধ্যে মাত্র চতুর্থ ম্যাচে জয় পেল সাসেক্স। নকআউট পর্বে যেতে হলে, তাদের বাকি তিনটি ম্যাচ জিততেই হবে।

বন্ধ করুন