বাংলা নিউজ > ময়দান > ওয়াহাব, আমির ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের অবস্থানে চিন্তিতো ইনজামাম
ইনজামাম উল হক, ওয়াহাব রিয়াজ ও মহম্মদ আমির (ছবি: গুগল)
ইনজামাম উল হক, ওয়াহাব রিয়াজ ও মহম্মদ আমির (ছবি: গুগল)

ওয়াহাব, আমির ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের অবস্থানে চিন্তিতো ইনজামাম

  • টি-২০ ক্রিকেটের উপর চোটে আছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক ইনজামাম উল হক। আগেও তিনি নিজের রাগকে প্রকাশ করেছিলেন, আবারও তিনি মুখ খুললেন। ওয়াহাব রিয়াজ ও মহম্মদ আমিরের টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর জন্য টি-২০ ক্রিকেটকেই দায়ী করলেন। তিনি জানালেন বিশ্ব মঞ্চে যেভাবে সাদা বলের খেলা টেস্টের জায়গা নিচ্ছে তাতে ভবিষ্যতে চিন্তা বাড়তে পারে।

টি-২০ ক্রিকেটের উপর চোটে আছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক ইনজামাম উল হক। আগেও তিনি নিজের রাগকে প্রকাশ করেছিলেন, আবারও তিনি মুখ খুললেন। ওয়াহাব রিয়াজ ও মহম্মদ আমিরের টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর জন্য টি-২০ ক্রিকেটকেই দায়ী করলেন। তিনি জানালেন বিশ্ব মঞ্চে যেভাবে সাদা বলের খেলা টেস্টের জায়গা নিচ্ তাতে ভবিষ্যতে চিন্তা বাড়তে পারে। নতুন প্রজন্ম টেস্ট ক্রিকেট নয় তারা ছুটবে সীমিত ওভারের ম্যাচের দিকেই।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টেস্টের সংখ্যা কমিয়ে টি-টোয়েন্টি বাড়িয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড, পিসিবি। বিষয়টা ভালো লাগেনি ইনজামাম উল হকের। তাই পাকিস্তান ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থার ওপর চটেছেন প্রাক্তন পাক অধিনায়ক।

আগামী জুলাই মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর করবে পাকিস্তান দল। পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী সফরে তিন টেস্ট এবং সমান টি-টোয়েন্টি ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। তবে সাদা পোশাকের একটি ম্যাচ কমিয়ে দুইটি টি-টোয়েন্টি বেশি খেলার সিদ্ধান্তে একমত হয়েছে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড।

ভারতের মাটিতে আগামী অক্টোবরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে। মূলত ছোট ওভারের বিশ্বমঞ্চের প্রস্তুতিকে সামনে রেখেই টেস্ট কমিয়ে বিশ ওভারের ম্যাচকে গুরুত্ব দিয়েছে পিসিবি।

বিভিন্ন স্পন্সরের আগ্রহ থাকায় টি-টোয়েন্টি থেকে মোটা টাকা আয়ের সুযোগ আছে। বলতে গেলে কুড়ি ওভারের ক্রিকেট এখন ব্যবসাতে পরিণত হয়েছে। তবে এজন্য টেস্ট ক্রিকেটকে হুমকির মুখে ফেলে দেওয়া মোটেও ঠিক হবে না বলে মনে করেন ইনজামাম।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ইনজামাম বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট মানুষকে বিনোদন দেয় এবং অবশ্যই খেলা উচিত। কিন্তু একটার ঘাড়ে আরেকটা চাপিয়ে দেওয়ার কোনও মানেই হয় না। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অধিক অর্থ উর্পাজন হলে হোক। তবে টেস্ট ক্রিকেটকে যেন এর মাশুল দিতে না হয়।’

বর্তমান সময়ে টেস্ট ক্রিকেটের প্রতি খেলোয়াড়দের অনীহার কথা সবারই জানা আছে। ইনজামাম মনে করেন, বোর্ড নিজেই যদি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটকে প্রাধান্য দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটের প্রতি অনীহা দেখায়, তাহলে খেলোয়াড়রা কোন পথে হাঁটবে, ‘যদি ক্রিকেট বোর্ডই টেস্টের চেয়ে টি-টোয়েন্টিকে বেশি প্রাধান্য দেয়, তাহলে খেলোয়াড়রা তো একই পথে হাঁটবে। ক্রিকেটের আসল মজা কিন্তু টেস্ট ম্যাচেই যেখানে ব্যাটসম্যানদের আসল দক্ষতা বোঝা যায়।’

আমির প্রসঙ্গ বলতে গিয়ে ইনজামাম উল হক বলেন, ‘আপনাদের মনে আছে আমির যখন টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানাচ্ছিল, তখন কত সমালোচনা হয়েছিল। সে কী ভাবে টেস্ট ক্রিকেটের পরিবর্তে টি-২০ ক্রিকেট ও লিগ ম্যাচকে গুরুত্ব দিচ্ছিল। একই ঘটনা ঘটেছে ওয়াহাব রিয়াজের সঙ্গেও। এখন বোর্ড টেস্টের বদলে টি২০ ম্যাচকে গুরুত্ব দিয়ে আবারও একই বার্তা দিচ্ছে। এরফলে আপনি কী ভাবে ক্রিকেটারদের বাঁধা দেবেন যাতে তারা টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর না নেন। যদি আপনারা এই একই কথা ভাবেন।’

বন্ধ করুন