বাংলা নিউজ > ময়দান > Rohit Sharma: আগেও অ্যাটাকিং খেলত ভারত! নিজের ওপর চাপ কমাতে বিরাট-শাস্ত্রী জমানার স্তুতি রোহিতের
রোহিত শর্মা (Reuters)

Rohit Sharma: আগেও অ্যাটাকিং খেলত ভারত! নিজের ওপর চাপ কমাতে বিরাট-শাস্ত্রী জমানার স্তুতি রোহিতের

  • এই সিরিজের মাঝেই উঠল গত টি-২০ বিশ্বকাপ প্রসঙ্গে। সেই আসরেই প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১০ উইকেটে হারতে হয় ভারতকে। যে কোনও ফর্ম্যাটের বিশ্বকাপে সেবারেই ভারতকে প্রথম হারাতে সক্ষম হয়েছিল পাকিস্তান।

শুভব্রত মুখার্জি: গত টি-২০ বিশ্বকাপে সবাইকে অবাক করে দিয়ে প্রত্যাশার তুলনায় একেবারেই খারাপ পারফরম্যান্স ছিল ভারতের। গ্রুপ পর্যায় থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল তাদের। তা নিয়ে কম সমালোচনা হয়নি। সেই বিষয়েই এবার মুখ খুললেন ভারতের বর্তমান অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তার মতে ওই বিশ্বকাপে ভারত ভয়ে ভয়ে খেলেনি। একেবারেই রক্ষ্মণাত্মক খেলেনি। বরঞ্চ ভারত এক নয়া ঘরানার ক্রিকেট টি-২০তে খেলার চেষ্টা করেছিল। যা খেলতে গিয়ে সাফল্য আসতে সময় লাগবে বলেই তার মত।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে ওয়ানডে সিরিজে বিশ্রাম নিলেও টি-২০তে দলে ফিরেছেন রোহিত শর্মা। এই সিরিজের মাঝেই উঠল গত টি-২০ বিশ্বকাপ প্রসঙ্গে। সেই আসরেই প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১০ উইকেটে হারতে হয় ভারতকে। যে কোনও ফর্ম্যাটের বিশ্বকাপে সেবারেই ভারতকে প্রথম হারাতে সক্ষম হয়েছিল পাকিস্তান। দ্বিতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে ৮ উইকেটে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়েছিল ভারতের। সেই সময় জাতীয় দলের অধিনায়ক ছিলেন বিরাট কোহলি। তার নেতৃত্বে ভারত কি রক্ষণশীল ক্রিকেট খেলত? এমন প্রশ্ন করা হয়েছিল রোহিতকে।

এমন ধারণা উড়িয়ে দিয়ে রোহিত শর্মা যুক্তি দেখিয়ে 'বিশ্বকাপে যে ফল আশা করেছিলাম তা আমরা করতে পারিনি। তার মানে এটা নয় যে আমরা খারাপ খেলেছি। তবে এটাও মানব না যে আমরা রক্ষণশীল খেলা‌ খেলেছিলাম। বিশ্বকাপে ১-২টো ম্যাচ হেরেছি মানে আমরা সুযোগ কাজে লাগাতে পারিনি। বিশ্বকাপের আগে আমরা ৮০ শতাংশ ম্যাচ জিতেছি। আমরা যদি ভয় পেয়ে খেলতাম তা হলে ওই ম্যাচগুলো জিতলাম কীভাবে?'

উল্লেখ্য বিশ্বকাপের পর পর্যায়ক্রমে তিন ফর্ম্যাটের নেতৃত্ব হারান বিরাট কোহলি। তার জায়গা নেতৃত্ব পান রোহিত শর্মা। তিনি জানান 'আমরা বিশ্বকাপে হেরেছি বলে এটা ঠিক নয় যে, আমরা ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলিনি। বিশ্বকাপের পর যে অনেক কিছু বদলে গেছে সেটাও কিন্তু নয়। আমরা ক্রিকেটারদের নিজের মতো স্বাধীনভাবে খেলতে দিয়েছি। সেটা করলেই সেরা খেলাটা বেরিয়ে আসবে এটাই স্বাভাবিক। এখন যে ধরনের ক্রিকেট আমরা খেলছি তাতে কিছু ম্যাচ হারব। তাই দলের বাইরের লোকজনের চুপ করে থাকাটাই ভালো।'

বন্ধ করুন