বাংলা নিউজ > ময়দান > সিরাজের জীবনে বিরাটের ভূমিকা কতোটা! মুখ খুললেন ভারতীয় তরুণ পেসার
মহম্মদ সিরাজ ও বিরাট কোহলি (ছবি: গুগল)
মহম্মদ সিরাজ ও বিরাট কোহলি (ছবি: গুগল)

সিরাজের জীবনে বিরাটের ভূমিকা কতোটা! মুখ খুললেন ভারতীয় তরুণ পেসার

  • অস্ট্রেলিয়া সফর চলাকালীনই নিজের বাবাকে হারিয়েছিলেন ভারতীয় পেসার মহম্মদ সিরাজ। সেই সময় তিনি বাড়ি ফিরে আসেননি। ক্রিকেটকে আঁকড়ে ধরে দেশের জন্য একটার পর একটা বল করে গিয়েছিলেন। সিরাজ জানালেন, সেই সময় দলের সকলে তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। কিন্তু দলের অধিয়ানায় বিরাট কোহলির ভূমিকা তিনি সারা জীবন ভুলতে পারবেননা।

অস্ট্রেলিয়া সফর চলাকালীনই নিজের বাবাকে হারিয়েছিলেন ভারতীয় পেসার মহম্মদ সিরাজ। সেই সময় তিনি বাড়ি ফিরে আসেননি। ক্রিকেটকে আঁকড়ে ধরে দেশের জন্য একটার পর একটা বল করে গিয়েছিলেন। বিশ্ব ক্রিকেট তখন হতবাক হয়েছিল সিরাজের এই লড়াকু মেজাজ দেখে। সকলেই মনে মনে ভাবতেন কী করে এমন অসম্ভব কাজ করতে পারছেন সিরাজ। অবশেষে সেই সময়কার ঘটনা নিজের মুখেই জানালেন ভারতীয় তরুণ পেসার। সিরাজ জানালেন, সেই সময় দলের সকলে তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। কিন্তু দলের অধিয়ানায় বিরাট কোহলির ভূমিকা তিনি সারা জীবন ভুলতে পারবেননা। 

সিরাজ জানিয়েছেন, ‘অস্ট্রেলিয়া সিরিজের সময় বাবাকে হারিয়েছিলাম। ওই ঘটনার পর অত্যন্ত ভেঙে পড়েছিলাম। মনে আছে, বাবা মারা যাওয়ার খবর শুনে হোটেলের রুমে বসে কাঁদছিলাম। বিরাটভাই আমার রুমে এসে জড়িয়ে ধরে বলেছিল, চিন্তা করো না, তোমার সঙ্গে আছি। বিরাটভাই মনোবল জুগিয়েছিল ওই সময়। আমি ক্রিকেটে যত দূর এগিয়েছি, যা করেছি, সেটা বিরাটভাইয়ের জন্য। ও না থাকলে এই ক্রিকেটটুকুও খেলা হত না আমার।’

বিরাটের মন্ত্রেই যে বদলেগেছে সিরাজের ক্রিকেট জীবন। বিরাটের এক একটা কথা তাতিয়েছিল তাকে। সেটাই স্বীকার করে নিলেন মহম্মদ সিরাজ। সিরাজ আরও জানিয়েছেন, ‘বিরাটভাই বরাবর বলে, যে কোনও উইকেটে খেলার মতো এবিলিটি তোর আছে। তুই যে কোনও ব্যাটসম্যানকে আউট করতে পারিস। ক’দিন আগে আইপিএলে চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচের পর বিরাটভাই আমার কাছে এসে বলেছিল, মিয়াঁ, তোমার মধ্যে দারুণ কিছু বদল এসেছে। এটা অত্যন্ত ভালো দিক। টিমকে এটা সাফল্য এনে দিচ্ছে। ইংল্যান্ড সফরের জন্য তৈরি হও। বিরাটভাইয়ের ওই কথাগুলো আমাকে ভীষণ ভাবে তাতিয়েছে।’

বন্ধ করুন