বাংলা নিউজ > ময়দান > এশিয়া কাপের দল বাছতে ভুল হল না তো! UAE-র পিচে ভারতের ৫ স্পিনার-চার পেসারের তত্ত্ব হজম হচ্ছে না

এশিয়া কাপের দল বাছতে ভুল হল না তো! UAE-র পিচে ভারতের ৫ স্পিনার-চার পেসারের তত্ত্ব হজম হচ্ছে না

রোহিত শর্মা ও রাহুল দ্রাবিড়

ভুবনেশ্বর কুমার, আবেশ খান এবং আর্শদীপ সিংকে বিশেষজ্ঞ ফাস্ট বোলার হিসাবে নির্বাচিত করা হয়েছে। অন্যদিকে স্পিনারদের ক্ষেত্রে যুজবেন্দ্র চাহাল, আর অশ্বিন, রবি বিষ্ণোই এবং রবীন্দ্র জাদেজাকে দলে রাখা হয়েছে।

সোমবার ২০২২ এশিয়া কাপ-এর জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করা হয়েছে। একটি বিষয় যা আশ্চর্যজনক ছিল তা হল দলে মাত্র তিনজন ফাস্ট বোলারকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অন্যদিকে দলে চারজন স্পিনারকে বাছাই করা হয়েছে। এশিয়া কাপের ম্যাচ ২৭ অগস্ট থেকে শুরু হবে। এই টুর্নামেন্ট চলবে ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। বিশেষজ্ঞদের মতে এই সময়ে ফাস্ট বোলাররাই নাকি দুবাইয়ের পিচে সাহায্য পাবেন। এমন পরিস্থিতিতে টিম ইন্ডিয়ার স্পিনারদের নিয়ে ধরা বাজি কি ভারতকে চাপে রাখবে। যদিও শারজাহর পিচে স্পিনারদের জন্য অনেক কিছু থাকে। কিন্তু ভারতের ম্যাচ দুবাইতে হবে, এমন পরিস্থিতিতে নির্বাচকদের এই সিদ্ধান্ত টিম ইন্ডিয়ার জন্য চাপ তৈরি করতে পারে? 

২০২১ আইপিএল হোক কিমবা ২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, আমরা দেখেছি যে দুবাইয়ের পিচে ম্যাচের শুরুতে ফাস্ট বোলারদের জন্য বাউন্স থাকে এবং শেষে বল কিছুটা সুইং করে। এমন পরিস্থিতিতে মাত্র তিন বিশেষজ্ঞ ফাস্ট বোলারকে নিয়ে এশিয়া কাপে নামার সিদ্ধান্ত হজম হচ্ছে না অনেক বিশেষজ্ঞের। হার্ষাল প্যাটেল এবং জসপ্রীত বুমরাহ দুজনেই ইনজুরির কারণে এশিয়া কাপে অংশ নিচ্ছেন না। তবে মহম্মদ শামিকে দলে না নেওয়াটা অনেককেই বেশ অবাক করেছে। 

ভুবনেশ্বর কুমার, আবেশ খান এবং আর্শদীপ সিংকে বিশেষজ্ঞ ফাস্ট বোলার হিসাবে নির্বাচিত করা হয়েছে। অন্যদিকে স্পিনারদের ক্ষেত্রে যুজবেন্দ্র চাহাল, আর অশ্বিন, রবি বিষ্ণোই এবং রবীন্দ্র জাদেজাকে দলে রাখা হয়েছে। নির্বাচকরা দীপক চাহার, শ্রেয়স আইয়ার এবং অক্ষর প্যাটেল তিনজনকে স্ট্যান্ডবাই প্লেয়ার হিসাবে বেছে নিয়েছেন। যার মানে আমরা যদি স্ট্যান্ডবাই খেলোয়াড়দের অন্তর্ভুক্ত করি, তাহলে মোট চারজন ফাস্ট বোলার এবং পাঁচজন স্পিনার দলে জায়গা পেয়েছেন। 

২০২১ আইপিএল সম্পর্কে কথা বললে, লিগের দ্বিতীয় পর্বটি সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের মধ্যে সংযুক্ত আরব আমির শাহিতে খেলা হয়েছিল। যেখানে হার্ষাল প্যাটেল, আবেশ খান, জসপ্রীত বুমরাহ, শার্দুল ঠাকুর এবং মহম্মদ শামি ক্রমানুসারে টুর্নামেন্টে সর্বাধিক উইকেট নিয়েছিলেন। যার অর্থ শীর্ষ-পাঁচ সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় একজনও স্পিনার ছিলেন না। ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময় ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা শীর্ষ উইকেট শিকারি হলেও, ট্রেন্ট বোল্ট, জোশ হ্যাজেলউড এবং এনরিখ নরকিয়া তাদের বোলিং দিয়ে বিপক্ষ ব্যাটারকে তটস্থ করে রেখেছিলেন। এমন অবস্থায় চারজন ফাস্ট বোলার ও পাঁচজন স্পিনারকে নিয়ে দল তৈরি করায় অনেকেই অবাক হয়েছেন। এখন প্রশ্ন উঠছে, ভারতীয় নির্বাচকরা ভুল করলেন না তো!

বন্ধ করুন