বাড়ি > ময়দান > ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে কোনও ক্রিকেটারকে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেলে তখন কী হবে? প্রশ্ন তুললেন দ্রাবিড়
ফাইল ছবি (REUTERS)
ফাইল ছবি (REUTERS)

ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে কোনও ক্রিকেটারকে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেলে তখন কী হবে? প্রশ্ন তুললেন দ্রাবিড়

রাহুল দ্রাবিড় মনে করেন না যে, এই মুহূর্তে জৈব-নিরাপদ পরিবেশের পরিকল্পনা কার্যকরী হতে পারে।

লকডাউনের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টা শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। যদিও করোনা মহামারী এখনও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। অনির্দিষ্টকাল অপেক্ষা করতে না চাওয়া ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো ক্রিকেট বোর্ডগুলি বায়ো-সিকিওর বা জৈব-নিরাপদ পরিবেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট শুরু করার আওয়াজ তুলতে শুরু করেছে। তবে রাহুল দ্রাবিড় মনে করেন না যে, এই মুহূর্তে জৈব-নিরাপদ পরিবেশের পরিকল্পনা কার্যকরী হতে পারে।

দ্রাবিড়ের স্পষ্ট মত, এই মুহূর্তে এমন ভাবনা বাস্তবায়িত হওয়া মুশকিল। দ্য ওয়াল এক্ষেত্রে আরও যথাযথ পরিকল্পনার প্রয়োজন বলে মনে করছেন। তিনি সংশয় প্রকাশ করেন যে, সব রকম ডাক্তারি পরীক্ষার পরেও যদি ম্যাচের মাঝে কোনও ক্রিকেটারের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে, তখন কী হবে? ম্যাচের ভবিষ্যৎ ও সিরিজের জন্য যাবতীয় প্রস্তুতির ফল কী দাঁড়াবে?

দ্রাবিড় বলেন, 'আমরা সবাই আশা করছি সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতির উন্নতি হবে। আমাদের হাতে ভালো ওষুধ এসে গেলে করোনা পরিস্থিতি পুনরায় স্বাভাবিক হয়ে দাঁড়াবে। তবে এই জৈব বুদবুদের কী হবে, যদি সমস্ত রকম পরীক্ষার পরেও ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে কোনও ক্রিকেটারকে করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়? কেউ কি ভেবেছে তখন কী হবে? নিয়ম মতো স্বাস্থ্য দপ্তরের লোকজন এসে সকলকে কোয়ারান্টাইনে পাঠিয়ে দেবে।'

তাই দ্রাবিড়ের মত, এভাবে ম্যাচের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত রেখে ক্রিকেট শুরু করা যায় না। কেননা, প্রতিটি সফরে দলের সঙ্গে বহু লোক জড়িয়ে থাকেন। তাই এভাবে বায়ো-সিকিওর পরিবেশে ক্রিকেট ম্যাচ আয়োজনের ভাবনা ফলপ্রসূ নাও হতে পারে।

বন্ধ করুন