বাংলা নিউজ > ময়দান > স্বামীরা ব্যর্থ হলে দায় স্ত্রী'দের, উপমহাদেশের সংস্কৃতি নিয়ে ক্ষোভ সানিয়ার
শোয়েব মালিকের সঙ্গে সানিয়া মির্জা। ছবি- টুইটার।
শোয়েব মালিকের সঙ্গে সানিয়া মির্জা। ছবি- টুইটার।

স্বামীরা ব্যর্থ হলে দায় স্ত্রী'দের, উপমহাদেশের সংস্কৃতি নিয়ে ক্ষোভ সানিয়ার

  • টেনিস তারকা জানান, তিনি ছাড়াও এমন পরিস্থিতির শিকার হয়েছেন অনুষ্কা শর্মা।

উপমহাদেশের সংস্কৃতিটাই এরকম যে, ছেলেরা সাফল্য পেলে সেটা তাঁদের নিজেদের কৃতিত্ব। আর তাঁরা ব্যর্থ হলে দোষ স্ত্রী'দের। ভারতীয় দলের দুই মহিলা ক্রিকেটার স্মৃতি মন্ধনা ও জেমিমা রডরিগেজের সঙ্গে আচোলনা প্রসঙ্গে এমনটাই মন্তব্য করলেন টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা। তিনি এও জানান যে, এই বিষয়টা সব থেকে ভালো উপলব্ধি করেন তিনি ও অনুষ্কা শর্মা।

ইউটিউবে মন্ধনা ও জেমিমার চ্যাট শো ডাবল ট্রাবলে কথা বলছিলেন সানিয়া। মেয়েদের টি-২০ বিশ্বকাপ ফাইনালের সময় মিচের স্টার্ককে নিয়ে সানিয়ার ‘জরু কা গুলাম’ টুইট নিয়ে প্রসঙ্গ উত্থাপিত হতেই ভারতীয় টেনিস সুন্দরী উপমহাদেশের সংস্কৃতিকে কাঠগড়ায় তোলেন।

সানিয়া বলেন, ‘আমাদের স্বামীরা যখন ভালো খেলে, তখন সেটা তাদের কৃতিত্ব। আর যখন ব্যর্থ হয়, দায় পড়ে আমাদের উপর। আমি বুঝি না এটা কীভাবে সম্ভব। বিষয়টা হাস্যকর। আমি এবং অনুষ্কা এটা ভালোভাবে টের পাই।’

বাস্তবিকই বিরাট কোহলি ও শোয়েব মালিক যখনই ব্যর্থ হন, সোশ্যাল মিডিয়ায় মুণ্ডপাত চলে অনুষ্কা ও সানিয়ার।

উল্লেখ্য, গত মহিলা টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালের আগে অস্ট্রেলিয়ার তারকা পেসার মিচেল স্টার্ক জাতীয় দল ছেড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দেশে ফিরেছিলেন স্ত্রী অ্যালিসা হিলির খেলা দেখার জন্য। সানিয়া সেইসময় টুইট করেছিলেন যে, উপমহাদেশে এমনটা হলে স্টার্ককে মুহূর্তে ‘জরু কা গুলাম’ বলা হত।

বন্ধ করুন